হাবশী এক বুজুর্গের কথা | আমার কথা
×

 

 

হাবশী এক বুজুর্গের কথা

coSam ২৩১


হযরত আবুল হোসাইন দায়লামী (রহঃ) বলেন, একবার আমি এক হাবশী সম্পর্কে শুনতে পেলাম যে, সে মানুষের মনের খবর বলতে লাগল। সে দূরবর্তী এক শহরে বসবাস করত। আমি তার সাক্ষাত করার উদ্দেশ্যে সেই শহরে গেলাম। সেখান গিয়ে দেখতে পেলাম, সেই হাবশী ফুটপাতে বসে কিছু বক্রয় করছে। আমি নিকটে গিয়ে তার পন্যের দাম জিজ্ঞেস করলাম।

সে আমার কোন প্রশ্নের জবাব না দিয়ে আমাকে ভালভাবে দেখে বলল, বস। আমি তার পাশে বসে পড়লাম। এবার সে আমাকে ভালভাবে দেখে বলল, আমার এ পন্য বিক্রয় হলে তার কিছু মূল্য তোমাকে দেব এবং কিছু আমি গ্রহণ করব। আমার মনে হচ্ছে তুমি দু'দিন যাবৎ অভুক্ত অর্থাৎ অনাহার।

দায়লামী বলেন, সত্য সত্যই আমি দু'দিন যাবৎ অনাহারে ছিলাম। সুতরাং হাবশীর কথা শুনে আমি প্রভাবিত হয়ে পড়লাম। তার পন্য বিক্রয় শেষ হলে তার কিছু মূল্য আমাকে দান করে অবশিষ্ট অর্থ পুটুলী বেঁধে সে এক দিকে যাত্রা করল। আমিও তার পেছনে পেছনে চললাম।

কিছুক্ষণ পর সে পেছনে ফিরে আমাকে বলল, তোমার যা কিছু প্রয়োজন হবে তা আল্লাহ পাকের নিকট প্রার্থনা করবে। আর ঐ প্রার্থনা যেন নফসের খায়েশাতের সংমিশ্রন না থাকে। কেননা যদি এরুপ হয় তবে ঐ প্রার্থনা তোমাকে আল্লাহ হতে দূরে সরিয়ে দেব। যে ব্যক্তি এ কথা বিশ্বাস করবে যে, আল্লাহ তা'আলাই আমার জন্য যথেষ্ট, সে কখনো মানুষকে পরওয়া করবে না।

কেননা, তার দৃঢ় বিশ্বাস, দুনিয়ার সব মানুষ আমার বিপক্ষে চলে গেলেও আমার ভাগ্যে যা আছে তা আমি লাভ করবই। আর দুনিয়ার সকল মানুষ সম্মিলিতভাবে চেষ্টা করেও যা আমার ভাগ্য নেই তা আমাকে দিতে পারবে না।


পরবর্তী গল্প
বীরে-রুমা

পূর্ববর্তী গল্প
সালমান ফারসীর (রহঃ) কারামত

ক্যাটেগরী