হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – শেষ পর্ব | আমার কথা
×

 

 

হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – শেষ পর্ব

coSam ১৯৩


আর যদি তোমরা বল, তবে আমি মক্কায় আমার সম্পদের সন্ধান বলিয়া দিব, তোমরা (তাহা লইয়া লও এবং) আমার পথ ছাড়িয়া দাও। তাহারা বলিল, ঠিক আছে। এই কথার উপর তাহাদের সন্ধি হইয়া গেলে তিনি তাহাদিগকে নিজের সম্পদের সন্ধান বলিয়া দিলাম। আল্লাহ্‌ তায়ালা এই ঘটনার উপর আপন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উপর কোরআনের এই আয়াত নাযিল করিলেন—

وَمِنَ النَّاسِ مَن يَشْرِي نَفْسَهُ ابْتِغَاءَ مَرْضَاتِ اللَّهِ

অর্থঃ আর মানুষের মাঝে এক শ্রেনীর লোক আছে, যাহারা আল্লাহ্‌র সন্তুষ্টিকল্পে নিজেদেরকে বিক্রয় করে, আল্লাহ্‌ তাহার বান্দাগণের প্রতি বড়ই মেহেরবান।

নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হযরত সোহাইব (রাঃ) কে দেখিবামাত্রই বলিলেন, হে আবু ইয়াহইয়া, (তোমার) ব্যবসা বড় লাভজনক হইয়াছে, আবু ইয়াহইয়া, (তোমার) ব্যবসা বড় লাভজনক হইয়াছে। তারপর তাহাকে কোরআন পড়িয়া শুনাইলেন। (কানযুল উম্মান)

হযরত ইকরিমা (রঃ) বলেন, হযরত সোহাইব (রাঃ) হিজরতের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হইবার পর মক্কাবাসীগণ তাহাকে অনুসরণ করিল। তিনি তূনীর হইতে চল্লিশটি তীর বাহির করিয়া তীর বিদ্ধ করিব ততক্ষন তোমরা আমার নিকট পৌছিতে পারিবে না। তীর শেষ হইবার পর আমি তলোয়ার ধারণ করিব। তোমরা জান, আমি একজন বীরপুরুষ। (অথবা তোমরা এমনও করিতে পার যে,) মক্কায় আমি দুইটি দাসী ছাড়িয়া আসিয়াছি, তাহাদেরকে তোমরা লইয়া লও (এবং আমাকে ছাড়িয়া দাও)।

হযরত আনাস (রাঃ) ও অনুরূপ রেওয়াতে বর্ণনা করিয়াছেন। উক্ত রেওয়াতে আছে যে, হযরত সোহাইব (রাঃ) এর এই ঘটনার পর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উপর এই আয়াত নাযিল হইয়াছে—

وَمِنَ النَّاسِ مَن يَشْرِي نَفْسَهُ ابْتِغَاءَ مَرْضَاتِ اللَّهِ

অতঃপর নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাহাকে দেখিয়া বলিলেন, হে আবু ইয়াহইয়া, '(তোমার) ব্যবসা লাভজনক হইয়াছে' এবং তাহাকে উক্ত আয়াত তেলাওয়াত করিয়া শুনাইলেন।

অপর এক রেওয়াতে আছে যে, হযরত সোহাইব (রাঃ) বলিয়াছেন, আমি মক্কা হইতে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট হিজরত করিবার ইচ্ছা করিলে কোরাইশগণ বলিল, তুমি যখন (রোম দেশ হইতে) আমাদের এখানে আসিয়াছিলে তখন তোমার কোন অর্থসম্পদ ছিল না। আর এখন তুমি তোমার অর্থসম্পদ ছিল না।

আর এখন তুমি তোমার অর্থসম্পদ লইয়া (মক্কা হইতে) চলিয়া যাইবে। আল্লাহ্‌র কসম কখনও এরূপ হইতে পারিবে না। আমি তাহাদিগকে বলিলাম, আচ্ছা বল, যদি আমার অর্থসম্পদ তোমাদিগকে প্রদান করি তবে কি তোমরা আমাকে ছাড়িয়া দিবে? তাহারা বলিল, হাঁ। অতএব আমি তাহাদিগকে আমার অর্থসম্পদ দিয়া দিলাম, আর তাহারা আমাকে ছাড়িয়া দিল। আমি সেখান হইতে রওয়ানা হইয়া মদীনা চলিয়া আসিলাম। নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট এই সংবাদ পৌছিলে তিনি দুইবার বলিলেন, সোহাইবের অনেক লাভ হইয়াছে, সোহাইবের অনেক লাভ হইয়াছে। (তাফসীরে ইবনে কাসীর)

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – প্রথম পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
ইবনে ঈস (রাঃ) এর হিজরত

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – পর্ব ১

ক্যাটেগরী