হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – পর্ব ১ | আমার কথা
×

 

 

হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – পর্ব ১

coSam ২১৫


হযরত সোহাইব (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলিলেন, আমাকে তোমাদের হিজরতের স্থান দেখানো হইয়াছে। দুইটি প্রস্তরময় ময়দানের মধ্যবর্তী একটি লবণাক্ত স্থান। উক্ত স্থান সম্ভবতঃ হাজর অথবা ইয়াসরাব হইবে। তারপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মদীনায় চলিয়া গেলেন। হযরত আবু বকর (রাঃ) তাহার সঙ্গে ছিলেন। আমারও তাহার সঙ্গে যাওয়ার ইচ্ছা ছিল কিন্তু কোরাইশের কতিপয় যুবক আমার জন্য বাঁধা হইল।

আমি সেই রাত্রে দাঁড়াইয়া কাটাইলাম, মোটেও বসি নাই। তাহারা আমাকে পাহারা দিতেছিল। (আমাকে দাঁড়াইয়া থাকিতে দেখিয়া) তাহারা বলাবলি করিল যে, আল্লাহ্‌ তায়ালা তাহাকে পেটের রোগে লিপ্ত করিয়া তোমাদিগকে নিশ্চিন্ত করিয়া দিয়াছেন। (সে এখন কোথাও যাইতে পারিবে না। কাজেই তোমাদের পাহারার প্রয়োজন নাই।) অথচ আমার কোন পেটের রোগ ছিল না। তাহারা (আমাকে অসুস্থ ভাবিয়া) ঘুমাইয়া পড়িল। আমি সেখান হইতে বাহির হইয়া পড়িলাম। আমি রওয়ানা হইতেই তাহাদের কিছুলোক আমার নিকট পৌছিয়া গেল। আমাকে ফেরৎ লইয়া যাওয়াই তাহাদের উদ্দেশ্য ছিল।

আমি তাহাদিগকে বলিলাম, তোমাদিগকে কয়েক উকিয়া স্বর্ণ দিব এইশর্তে যে, তোমরা আমার পথ ছাড়িয়া দিবে এবং এই অঙ্গীকার পালন করিবে। তাহারা একমত হইল। সুতরাং আমি তাহাদের পিছনে পিছনে মক্কা আসিলাম এবং বলিলাম, দরজার চৌকাঠের নিচে খনন কর, সেখানে কয়েক উকিয়া স্বর্ণ আছে। আর অমুক মহিলার নিকট যাও, তাহার নিকট দুই জোড়া কাপড় আছে লইয়া লও। অতঃপর আমি সেখান হইতে রওয়ানা হইয়া কোবায় রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের খেদমতে উপস্থিত হইলাম। তিনি তখনও কোবা হইতে মদীনার দিকে রওয়ানা হন নাই।

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে দেখিয়া বলিলেন, হে আবু ইয়াহইয়া, (তোমার) ব্যবসা বড় লাভজনক হইয়াছে। (অর্থাৎ স্বর্ণ ও কাপড়ের বিনিময়ে হিজরতের সৌভাগ্য অর্জন করিয়াছ।) আমি আরজ করিলাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ, আমার পূর্বে তো আপনার নিকট কেহ আসে নাই। নিশ্চয় হযরত জিব্রাঈল আলাইহিস সালামই আপনাকে জানাইয়াছেন। (বিদায়াহ)

হযরত সাঈদ ইবনে মুসাইয়েব (রঃ) বলেন, হযরত সোহাইব (রাঃ) নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট হিজরতের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হইবার পর কোরাইশের একদল মুশরিক তাহার অনুসরণ করিল। (তাহারা নিকতবর্তী হইলে) তিনি সওয়ারী হইতে নামিয়া তূনীর হইতে তীর বাহির করিয়া বলিলেন, হে কোরাইশগণ, তোমাদের জানা আছে যে, আমি তোমাদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ তীরন্দাজ। আল্লাহ্‌র কসম, আমার তূণীরে একটি তীর অবশিষ্ট থাকা পর্যন্ত তোমরা আমার নিকট পৌছিতে পারিবে না। তীর শেষ হইবার পর আমার হাতে যতক্ষণ তলোয়ার থাকিবে আমি উহা দ্বারা তোমাদের উপর আক্রমণ করিতে থাকিব। তারপর তোমাদের যাহা ইচ্ছা হয় করিও।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন


পরবর্তী গল্প
হযরত সোহাইব ইবনে সিনান (রাঃ) এর হিজরত – শেষ পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত আবু সালামা ও উম্মে সালামা (রাঃ) এর মদীনায় হিজরত – শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী