হযরত সালমান ফারসীর ঘটনা | আমার কথা
×

 

 

হযরত সালমান ফারসীর ঘটনা

coSam ৫৭২


হযরত সালমান ফারসী (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি কিন্দাহ  গোত্রের ছাওয়াব নাম্নী জনৈক মহিলাকে বিয়ে করেন। তিনি মহিলার কাছে যাওয়ার সময় গৃহের দরজায় গিয়েই থমকে দাড়ান এবং মহিলার নাম ধরে ডাকতে থাকলে মহিলা কোন জবাব দেয়নি।

তিনি বললেন, ওহে তুমি কি বোবা নাকি বধির। তুমি শুনতে পাচ্ছ না। মহিলা বলল, হে আল্লাহর নবীর সাহাবী আমি বোবাও নই, বধিরও নই। কিন্তু নব বধু বলে আহ্বান করায় লজ্জা অনুভব করছি।

হযরত সালমান ফারসী (রহঃ) ঘরে প্রবেশ করেই পর্দা টানানো দেখতে পেলেন। সেখানে মূল্যবান সামগ্রী ছিল রেশমী কাপড়ও ছিল। তিনি বললেন, ওহে! তোমার ঘরের কি জ্বর এসেছে যে, তুমি কাপড় জড়িয়ে রেখেছ। কিংবা এটি কা'বা ঘর হয়ে গেল নাকি যা কাপড় দ্বারা মুড়িয়ে রেখেছ?

মহিলা জবাব দেয়, হে আল্লাহর রাসূলের সাহাবী! তেমন কিছু নয়, নব বধু তার ঘর সাজায়, অতঃপর তিনি মাথা উঠিয়ে দেখলেন খাদেমরা তার পাশে দাঁড়ানো। তারা তার সম্মুখে খানা নিয়ে দণ্ডায়মান, তিনি বললেন, আল্লাহর নবী এর কাছে শুনেছি, তিনি বলেন-

অর্থাৎ যে ব্যক্তি নরম তুলতুলে বিছানাতে শয়ন করে জাকজমক পোশাক পরিধান করে, শান শওকতের বাহনে চড়ে এবং মনের ইচ্ছায় আহার্য খায় সে জান্নাতের গন্ধও পাবে না। তার স্ত্রী জবাব দেয় হে আল্লাহর নবীর সাহাবী। আপনাকে সাক্ষী রেখে বলছি যা কিছু গৃহে দেখতে পাচ্ছেন সবিই আল্লাহর রাস্তায় দান করে দিলাম। আমার সব ক'টি গোলাম আল্লাহর রাস্তায় আজাদ করে দিলাম। আমাকে সামান্য পরিমাণ গম দিন। এ দ্বারা আমি আমার সংসার পরিচালনা করব। তখন হযরত সালমান ফারসী (রাঃ) বললেন, আল্লাহ পাক তোমার প্রতি রহম করুন এবং তোমাকে সার্বিক সহযোগিতা করুন। 


পরবর্তী গল্প
হালাল খাদ্যের বিস্ময়কর ঘটনা

পূর্ববর্তী গল্প
খৃষ্টান মহিলার প্রেমে পাগল হওয়ার ঘটনা

ক্যাটেগরী