হযরত মুআবিয়া ইবনে হাইদাহ (রাঃ) কে দাওয়াত প্রদান | আমার কথা
×

 

 

হযরত মুআবিয়া ইবনে হাইদাহ (রাঃ) কে দাওয়াত প্রদান

coSam ৭৩


হযরত মুয়াবিয়া ইবনে হাইদাহ কুশাইরী (রাঃ) বলেন, আমি রাসূল (সাঃ)-এর খেদমতে আসিয়া বলিলাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ, আমি এ যাবত আপনার নিকট আসি নাই। তারপর উভয় হাতের তালু এক্ত্র করিয়া দেখাইয়া বলিলেন, কারণ আমি আঙ্গুলের রেখা অপেক্ষা অধিকবার কসম খাইয়াছি যে, আপনার নিকট আসিব না আর আপনার দ্বীন গ্রহণ করিব না। কিন্তু এখন আমি আপনার নিকট এমন অবস্থায় আসিয়া উপস্থিত হইয়াছি যে, আল্লাহ তায়ালা আমাকে যৎসামান্য বুঝাইয়াছেন তাহা ব্যতিত আমি কিছুই বুঝিতে পারিতেছি না।

আমি আপনাকে মহান আল্লাহ তায়ালার ওয়াস্তে জিজ্ঞাসা করিতেছি যে, আমাদের রব আপনাকে আমাদের নিকট কি জিনিস দিয়া পাঠাইয়াছেন? তিনি বলিলেন, দ্বীনে ইসলাম দিয়া পাঠাইয়াছেন। হযরত মুয়াবিয়া (রাঃ) জিজ্ঞাসা করিলেন, দ্বীনে ইসলাম কি? তিনি বলিলেন, ইসলাম এই যে, তুমি বলিবে, দ্বীনে ইসলাম কি? তিনি বলিলেন, ইসলাম এই যে, তুমি বলিবে, আমি নিজেকে আল্লাহর আনুগত্যে সমর্পণ করিলাম এবং আল্লাহ ব্যতিত অন্য সব কিছু হইতে পৃথক হইয়া গেলাম। নামাজ কায়েম করিব, যাকাত দান করিবে। প্রত্যেক মুসলমান অপর প্রত্যেক মুসলমানের জন্য সম্মানযোগ্য। তাহারা উভয়ে ভাই ভাই, একে অপরের সাহায্যকারী।

ইসলাম গ্রহণের পর যে ব্যক্তি শিরক করে আল্লাহ তায়ালা তাঁহার কোন আমল কবুল করেন না, যতক্ষণ না সে মুশরিকদের হইতে সম্পূর্ণভাবে পৃথক হইয়া যায়। তোমাদিগকে কোমর ধরিয়া দোযখ হইতে রক্ষা করার আমার কি প্রয়োজন ছিল? তবে জানিয়া রাখ, আমার রব আমাকে ডাকিবেন এবং জিজ্ঞাসা করিবেন, তুমি কি আমার বান্দাগণের নিকট (আমার পয়গম) পৌঁছাইয়াছ? আমি বলিব, হে আমার রব, আমি পৌঁছাইয়াছি। শুনিয়া রাখ, তোমাদের উপস্থিতগণ যেন অনুপস্থিতদিগকে পৌঁছাইয়া দেয়। শুনিয়া রাখ, (কিয়ামতের দিন) তোমাদিগকে মুখ বাঁধা অবস্থায় ডাকা হইবে। অতঃপর সর্বপ্রথম তোমাদের প্রত্যেকের উরু ও হাতের তালু তাহার (কর্মকাণ্ড) সম্পর্কে বলিয়া দিবে। হযরত মুয়াবিয়া (রাঃ) বলেন, আমি বলিলাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ, ইহাই কি আমাদের দ্বীন? তিনি বলিলেন, ইহাই তোমার দ্বীন এবং তুমি যেখানেই থাকিয়া এই দ্বীনের উপর সুন্দরভাবে আমল করিবে তোমার জন্য ইহা যথেষ্ট হইবে। (ইস্তিআব)

পরবর্তী গল্প
হযরত আবু বকর সায়দালানী (রঃ)

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন চিশতি (রঃ) – শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী