হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৭ | আমার কথা
×

 

 

হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৭

coSam ১৩৪


হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৬ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

এবার তিনি টাকাগুলো সামনে রেখে বললেন, ওযু গোসল করে পাক-পবিত্র হয়ে তুমি আমার সঙ্গে দু’রাকআত নামাজ আদায় কর। বীরাঙ্গনার জীবনে এ এক অভিনব অভিজ্ঞতা। এমন খদ্দের সে এর আগে কখনও দেখেনি। তাঁর কথাবার্তা, হাবভাবও বিচিত্র মনে হচ্ছে। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কী দাঁড়ায়। তাকে নিয়ে দু’রাকআত নফল নামাজ পড়লেন। নামাজ শেষে তিনি হাত ওঠালেন আল্লাহ্‌র দরবারে, প্রভু গো! আপনার এই পথ-ভ্রষ্টা দাসীকে আমি জায়নামাজের ওপর আপনারই দিকে মুখ ফিরিয়ে দিলাম। আপনার চরণমূলে ঝুঁকিয়ে দিলাম তার মাথা। এবার আপনি তার অন্তরকে আপনার প্রতি আকর্ষণ করুন।

হযরতের প্রার্থনা আল্লাহ্‌র দরবারে কবুল হয়ে গেল। গণিকার মনে সৃষ্টি হল ভাবান্তর। যেন অন্তর জুড়ে শুরু হল তুমুল আলোড়ন। সারা জীবনের সঞ্চিত পাপের কথা ভেবে সে ভয়ে অস্থির হয়ে উঠল। আর লুটিয়ে পড়ল মহাতাপসের পদ-প্রান্তে। হে মহান! তওবা করিয়ে আমাকে পাপ-মুক্ত করুন। আমি চিরিদিন আপনার কাছে কৃতজ্ঞ থাকব। হযরত সঙ্গে সঙ্গে তাকে তওবা পড়িয়ে দিলেন। কথিত আছে, এই বীরাঙ্গনা পরবর্তীকালে এক বিশিষ্ট সাধিকায় রূপান্তরিত হয়।

চারজন জ্ঞানী ব্যক্তি এসেছেন হযরত বায়েজীদ (রঃ)-এর দরবারে। সূক্ষ্ম মারেফত তত্ত্বের আলোচনা হবে। একটি ঝকঝকে সাদা পেয়ালায় কিছু মধু ও একগাছি চুল এনে আলোচনা সভায় রাখা হল। জ্ঞানী ব্যক্তিরা এর উদ্দেশ্যে অনুমান করে এ বিষয়ে নিজ নিজ মত ও মন্তব্য প্রকাশ করলেন।

প্রথম জনঃ মানুষের জ্ঞান ও বুদ্ধি এই পেয়ালা থেকেও অধিক স্বচ্ছ। বিদ্যা এ মধু থেকেও উপাদেয়। আর মমতা এ চুল থেকেও সূক্ষ্ম।

 দ্বিতীয় জনঃ স্বর্গের পেয়ালা এ পেয়ালা থেকেও উত্তম। জান্নাতের মধুর স্বাদ এ মধুর চেয়েও উৎকৃষ্ট। আর পুলসিরাত এ চুল থেকেও সরু।

তৃতীয় জনঃ মুমিনের অন্তর এ পেয়ালা থেকেও উজ্জ্বল ও স্বচ্ছ। এ মধুর মিষ্টতার চেয়ে আল্লাহ্‌র কালামের মাধুর্য আরও উন্নত। আর হক হকুকের জ্ঞান এ চুল থেকেও সূক্ষ্মতম।

চতুর্থ জনঃ ইখলাসের পরিপাট্য এ পেয়ালা অপেক্ষা বেশী। এবাদাত-ধ্যান এ মধুর চেয়েও মধুরতর। আর পবিত্রতা ও ধর্মনিষ্ঠা এ চুলের চেয়েও সূক্ষ্মতম।

সব শেষে মুখ খুললেন হযরত বায়েজীদ (রঃ) বললেন, মারেফত বিদ্যা এ পেয়ালা থেকে বেশী সাদা, বেশী স্বচ্ছ। আল্লাহ্‌র প্রেমের স্বাদ এ মধুর চেয়েও মধুরতর। আর আল্লাহ্‌র ভয় চুল অপেক্ষাও সরু, তীক্ষ্ণ।

হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৮ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৮

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত বায়েজীদ বোস্তামী (রঃ) – পর্ব ১৬

ক্যাটেগরী