হযরত নুহের (আঃ) নৌকায় উঠার সময় শয়তানের ঔদ্ধত্য | আমার কথা
×

 

 

হযরত নুহের (আঃ) নৌকায় উঠার সময় শয়তানের ঔদ্ধত্য

coSam ৫১৭


হযরত ইবনু আব্বাস (রাঃ) বলেছেনঃ হযরত নূহ (আঃ) তাঁর নৌকায় সবার আগে পিঁপড়েকে তুলেছিলেন এবং সবার শেষে গাধাকে।  গাধা তাঁর দেহের সামনের অংশ নৌকায় তোলার পর ইবলীস তাঁর লেজ জড়িয়ে ধরে, যার কারণে গাধা তাঁর ভিতরে নিয়ে যেতে পারিনি। 

হযরত নূহ (আঃ) তখন (গাধার উদ্দেশ্য) বলেন, তুই ধ্বংস হ! আয়, ভিতরে চলে আয়।  গাধাটা তখন পা  তোলে।  কিন্তু শক্তিতে কুলোয় না।  অবশেষে হযরত নূহ (আঃ) বলেন, তোর সাথে শয়তান থাকলেও পুরোপুরি ভিতরে চলে আয়।   হযরত নূহ (আঃ) এ কথা বলতেই শয়তান গাধার রাস্তা ছেড়ে দেয়।  ফলে গাধা ভিতরে ঢুকে যায়।  তাঁর সাথেই শয়তানও ঢুকে পড়ে। 

হযরত নূহ (আঃ) তখন শয়তান কে বলেন, ওরে খোদার দুশমন, কে ঢোকাল তোকে? শয়তান বলল, আপনি তো গাধাকে বললেন, তোর সাথে শয়তান থাকলেও ভিতরে চলে আয়।  হযরত নূহ (আঃ) তখন বলেন, যা ভাগ এখান থেকে।  শয়তান বলে, আমাকে নৌকায় তুলে নেওয়া আপনার জরুরি।  কেননা আমাকে কিয়ামত পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে এবং আল্লাহ্‌ আমাকেই এই বন্যা আযাব থেকে এই নৌকার মাধ্যমে বাঁচাবেন।  সুতরাং শয়তান এরপর সেই নৌকার ছাদে গিয়ে উঠে। 

পরবর্তী গল্প
হযরত নুহের কাছে শয়তান

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত ওমর (রাঃ) এর যুদ্ধ পদ্ধতি

ক্যাটেগরী