হযরত ঈসা (আঃ) এর শিক্ষা | আমার কথা
×

 

 

হযরত ঈসা (আঃ) এর শিক্ষা

coSam ১৪৬


হযরত ঈসা (আঃ) ঈঞ্জিলের এবং প্রকাশ্য নিদর্শন সমূহের মাধ্যমে বনী ইসরাইলীদেরকে সত্য দ্বীন শিক্ষা দিতে থাকেন। তাওরাতের যে শিক্ষা তারা ভুলে গিয়েছিল তিনি তাদেরকে এটা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তাদের মৃত অন্তরকে সজীব করে তুলেছিলেন। তাঁর এ প্রচেষ্টার ফলে বনী ইসরাঈলদের কিছু লোক সত্য দ্বীনের অনুসারী হয়েছিল কিন্তু অধিকাংশ লোক নিজেদের হটধর্মিতার কারণে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের পথের অনুসরণে বিরত রইল।

যারা তাঁর অনুসরণ করেছিল তিনি তাদের ঈমান, তাওহীদ, আখিরাত, হাশরের কথা বুঝিয়ে বুঝিয়ে এবং তাদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের মধ্যে উত্তম গুণাবলী সৃষ্টি ও গঠনের প্রয়াস চালাচ্ছিলেন। আর সাধারণভাবে সকলকে তৌরাত ও ইঞ্জিলের বিধান ও অনুসারী হওয়ার জন্য আহ্বান করছিলেন। তিনি লোকদেরকে বলতেন, আমি তোমাদের কাছে এমন হিকমত নিয়ে এসেছি যদি তোমরা আমার কথা মেনে চল তবে তোমাদের মধ্যকার সমস্ত বিভেদ দূর হয়ে যাবে এবং তোমাদের পরস্পরের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও সৌহার্দ্য প্রতিষ্ঠিত হবে। কোরআনে ইরশাদ হয়েছেঃ

ঈসা (আঃ) যখন নিদর্শন সমূহ সহ বলেন, আমি তোমাদের আকিদা সংশোধন করার জন্য হিকমত সহ তোমাদের কাছে এসেছি। আর যে বিষয়ে তোমরা দ্বিমত করছ তা তোমাদের কাছে বর্ণনা করব। তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার অনুসরণ কর। নিশ্চয় আল্লাহ পাক আমারও তোমাদেরও রব। সুতরাং তাঁর ইবাদত কর। এটাই সোজা পথ। কিন্তু তারা বিভিন্ন দলে নিজেদের মধ্যে মতদ্বন্দের সৃষ্টি করল। সুতরাং এ সব যালিমদের জন্য বেদনাদায়ক দিবসের আযাব অপেক্ষাও বড় ধ্বংস রয়েছে। সূরা - যুখরুফঃ আয়াত-৬৩-৬৫

পরবর্তী গল্প
হযরত মূসা (আঃ)-এর তুর পাহাড়ে গমন

পূর্ববর্তী গল্প
বায়তুল মুকাদ্দাস নির্মাণ

ক্যাটেগরী