হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৬ | আমার কথা
×

 

 

হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৬

coSam ১৩৫


হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৫  পড়তে এখানে ক্লিক করুন

আল্লাহর অশেষ ইচ্ছায় দীর্ঘ দিন পর পিতা-পুত্রে মিলন ঘটল পবিত্র মক্কা শরীফে। পরস্পরকে জড়িয়ে ধরে বিপুল কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন। যেন আকাশ ও পৃথিবী প্রবল কান্নায় উত্থলে উঠল। এক সময় তাঁরা সংজ্ঞা হারালেন। জ্ঞান ফিরে এলে হযরত ইব্রাহীম (রঃ) পুত্রকে জিজ্ঞেস করেন, তুমি কোন ধর্ম পালন করছ বাপ?

পুত্র বলেন, আমি ইসলাম ধর্মের অনুসারী।

পবিত্র কোরআন শিখেছি?

কি আব্বা।

কিছু ধর্মীয় জ্ঞান অর্জন করেছ কি?

জ্বী। আল্লাহ রহমতে তাও করেছি।

আলহামদুলিল্লাহ। খুব খুশি হলেন হযরত আদহাম (রঃ)। এবার বিদায় নেবার পালা। হযরত আদহাম (রঃ) এবার তাঁর আপন বলয়ে ফিরতে চাইলেন। কিন্তু বাধা এল পুত্র ও অশ্রুমতী স্ত্রীর তরফ থেকে। তখন আকাশের দিকে চোখ তুলে তাপস বললেন, আল্লাহ গো আপনি আমাকে সাহায্য করুন।

তার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ ঘটে গেল ঘটনাটি। মাটিয়ে লুটিয়ে পড়লেন হযরতের প্রিয়তম পুত্র। আর উঠলেন না। নিঃশ্বাস শেষবারের মত বেরিয়ে গেল। ঘটনার আকস্মিকতায় সবাই বিমূঢ় হয়ে গেলেন। শিষ্যরা বললেন একি হল হুজুর। তিনি জবাব দিলেন, আমি যখন পুত্র দর্শনে পাগল হয়ে তাঁকে কোলে তুলে নিলাম তখন আমার কাছে এক দৈববাণী আসে ইব্রাহীম, তুমি না আমার বন্ধুদের দাবী কর। কিন্তু এখন দেখছি, আমার ভালোবাসার সঙ্গে অন্যকেও হৃদয়ে স্থান দিয়েছ। তুমি তোমার শিষ্যদের উপদেশ দাও স্ত্রী পুত্র কন্যার প্রেমে আবদ্ধ হবে না। অথচ তুমি নিজেই তাদের আকর্ষণে অস্থির। ঐ বানী শুনে আমি আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা জানাই, প্রভু গো, হয়

আমাকে না হয় আমার পুত্রকে আপনার দরবারে তুলে নিন। আল্লাহ আমার প্রার্থনা মঞ্জুর করেছেন। পুত্রের ক্ষেত্রে তা কার্যকর হল।

মনে প্রশ্ন আসে, হযরত আদহাম (রঃ)-এর মত মহান সাধক নির্দোষ পুত্রের মৃত্যু কামনা করলেন? তখন অন্য জ্যোতিস্ক হযরত আদহাম (রঃ)-এর কথা মনে পড়ে। প্রিয়তম প্রভূর নির্দেশ পালনে, প্রভুর সন্তোষ বিধানে তিনি তাঁর প্রিয়তম পুত্রের গলায় ধারালো ছুরি বসিয়েছিলেন। আল্লাহর পথের পথিক যারা, তাঁরা কি কখনও মানবিক বা স্নায়ুবিক দুর্বলতার শিকার হন?

হযরত আদহাম (রঃ)-এর বড় ইচ্ছা রাত্রে কাবা গৃহে একান্তে আল্লাহর মোনাজাত করবেন। একদিন অপূর্ব সুযোগও এসে গেল। রাতে তিনি কাবা ঘরে কোন জনপ্রাণী ছিল না। আর এই সু্যোগ হাতছাড়া হতে না দিয়ে তিনিও পবিত্র গৃহে হাত রেখে নিজের পাপের জন্য তাওবা করলেন। আর আল্লাহর দরবারে মাগফিরাতের জন্য প্রার্থনা করলেন। সঙ্গে সঙ্গে ধ্বনিত হল অদৃশ্য বাণীঃ ইব্রাহীম, তোমার মত সমগ্র সৃষ্টি আমার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করছে। এখনও যদি তোমাকে ক্ষমা করে দিই, তাহলে রোজ কিয়ামতে আমার ক্ষমাগুণটি কিভাবে করব?

প্রভু গো, অন্ততঃ আমাকে মাফ করে দিন। ইব্রাহিম (রঃ) কাতরভাবে বললেন।

সূত্রঃ তাযকিরাতুল আউলিয়া

হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৭  পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৭

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রঃ) – পর্ব ৫

ক্যাটেগরী