হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ৩ | আমার কথা
×

 

 

হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ৩

coSam ১৭১


হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

সুতরাং রাসূল (সাঃ) তাহার জন্য এই দোয়া করিলেন, আয় আল্লাহ! সে (অর্থাৎ ইকরামা) আমার সহিত যত শত্রুতা করিয়াছি বা সে আপনার নূরকে নিভাইবার উদ্দেশ্যে যে কোন সফর করিয়াছি তাহা মাফ করিয়া দিন এবং আমার সাক্ষাতে অসাক্ষাতে আমাকে যে কোন প্রকার অপমান করিয়াছি তাহা মাফ করিয়া দিন। হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ, আমি সন্তুষ্ট হইয়াছি। তারপর বলিলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমি আজ পর্যন্ত আল্লাহর পথে অন্তরায় সৃষ্টির উদ্দেশ্যে যে পরিমাণ ব্যয় করিয়াছি এখন উহার দ্বিগুণ আল্লাহর পথে ব্যয় করিব এবং যে পরিমাণ আল্লাহর পথে বাঁধা দানের উদ্দেশ্যে যুদ্ধ করিয়াছি এখন উহার দ্বিগুণ আল্লাহর পথে জিহাদ করিব। অতএব

পরবর্তীতে হযরত ইকরামা (রাঃ) জিহাদের ময়দানে যুদ্ধ করিতে করিতে শাহাদাত বরণ করিয়াছেন।

রাসূল (সাঃ) হযরত ইকরামা (রাঃ) ও তাহার স্ত্রীকে পূর্ববিবাহের উপর বহাল রাখিয়াছেন। নতুনভাবে বিবাহ পড়ান নাই।

ওয়াকেদী বর্ণনা করিয়াছেন যে, হুনাইনের যুদ্ধের দিন (প্রথম দিকে মুসলমানের পরাজয়ের দৃশ্য দেখিয়া) সুহাইল ইবনে আমর বলিল, মুহাম্মাদ (সাঃ) ও তাঁহার সাহাবীদের জন্য এই পরাজয়ের ক্ষতিপূরণ কখনও সম্ভব হইবে না। বর্ণনাকারী বলেন, হযরত ইকরামা (রাঃ) তখন প্রতিউত্তরে বলিয়াছেন যে, এমন কথা নহে বরং জয়-পরাজয় আল্লাহর হাতে। মুহাম্মাদ (সাঃ)-এর এই ব্যাপারে কোন ভূমিকা নাই।

আজ যদি তাহাঁর পরাজয় হয় তবে কাল আবার বিজয় হইবে। সুহাইল বলিল, খোদার কসম, তুমি তো কিছুদিন পূর্বেও তাঁহার বিরোধিতা করিয়াছ। (এখন আবার তাঁহার পক্ষে কথা বলিতেছ!) হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিলেন, হে আবু ইয়াযীদ! খোদার কসম, আমরা ভুলপথে প্রচেষ্টা চালাইতে ছিলাম। আমরা কেমন নির্বোধ ছিলাম যে, পাথর পূজা করিতাম যাহা না ক্ষতি করিতে পারে, না উপকার করিতে পারে। (কানযুল উম্মাল)

হযরত আবদুল্লাহ ইবনে যুবাইর (রাঃ) হইতে বর্ণিত হাদিসে আছে যে, হযরত ইকরামা (রাঃ) রাসূল (সাঃ)-এর দ্বারে উপস্থিত হইলে তিনি তাহার আগমনে অত্যন্ত খুশী হইলেন এবং আনন্দের আতিশয্যে উঠিয়া প্রতি আগাইয়া গেলেন।

হযরত ওরওয়া ইবনে যুবাইর (রাঃ) হইতে বর্ণিত আছে, হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিয়াছেন যে, আমি রাসূল (সাঃ)-এর খেদমতে উপস্থিত হইয়া বলিলাম, হে মুহাম্মাদ আমার এই স্ত্রী আমাকে বলিয়াছে যে, আপনি আমাকে নিরাপত্তা দান করিয়াছেন। রাসূল (সাঃ) বলিলেন, তুমি নিরাপদ। আমি সাক্ষ্য দিতেছি যে, আল্লাহ ব্যতিত কোন মাবুদ নাই, তিনি এক, তাহার কোন শরীক নাই এবং আপনি আল্লাহর বান্দা ও তাঁহার রাসূল।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – শেষ পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২

ক্যাটেগরী