হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২ | আমার কথা
×

 

 

হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২

coSam ২২৫


হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ১ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

অতঃপর (মক্কা পৌঁছিবার পর) নবী কারীম (সাঃ) ইকরামাকে দেখিয়া আনন্দের আতিশয্যে এরূপ উঠিয়া তাহার দিকে অগ্রসর হইলেন যে, চাদর গায়ে দিবার কথাও খেয়াল রহিল না। তারপর রাসূল (সাঃ) বসিলে ইকরামা তাহার সম্মুখে আসিয়া দাঁড়াইলেন, পাশে মুখে নেকাব ঢাকা তাহার স্ত্রী। ইকরামা বলিলেন, হে মুহাম্মাদ, আমার এই স্ত্রী আমাকে বলিয়াছে যে, আপনি আমাকে নিরাপত্তা দান করিয়াছেন।

নবী কারীম (সাঃ) বলিলেন, সে সত্য বলিয়াছে, তুমি নিরাপদ। ইকরামা বলিলেন, হে মুহাম্মাদ, আপনি কিসের প্রতি আহবান জানাইয়া থাকেন। নবী কারীম (সাঃ) বলিলেন, আমি তোমাকে এই আহবান জানাই যে, তুমি সাক্ষ্য দিবে যে, আল্লাহ ব্যতিত কোন মাবুদ নাই এবং আমি আল্লাহর রাসূল, আর নামাজ কায়েম করিবে, যাকাত প্রদান করিবে এবং এই এই কাজ করিবে।

রাসূল (সাঃ) কতিপয় ইসলামী আমলের উল্লেখ করিলেন। ইকরামা বলিলেন, খোদার কসম, আপনি হক ও অতি উত্তম এবং দাওয়াতের পূর্বেও আপনি আমাদের মধ্যে সর্বাপেক্ষা সত্যবাদী ও সদাচারী ছিলেন। অতঃপর ইকরামা বলিলেন, আমি সাক্ষ্য দিতেছি যে, আল্লাহ ব্যতিত কোন মাবুদ নাই এবং সাক্ষ্য দিতেছি যে, মুহাম্মাদ (সাঃ) আল্লাহর বান্দা ও তাঁহার রাসূল।

রাসূল (সাঃ) তাঁহার ইসলাম গ্রহণে অত্যন্ত আনন্দিত হইলেন। তারপর হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ, আপনি আমাকে ভাল কিছু শিখাইয়া দিন যাহা আমি পড়িব। রাসূল (সাঃ) বলিলেন, তুমি বল-  হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিলেন, আর কি বলিব? তিনি বলিলেন, তুমি বল, আমি আল্লাহ ও উপস্থিত সকলকে সাক্ষী রাখিয়া বলিতেছি যে, আমি একজন মুসলমান মুজাহিদ মুহাজির। হযরত ইকরামা (রাঃ) তাহা বলিলেন।

অতঃপর রাসূল (সাঃ) বলিলেন, আজ তুমি আমার নিকট যে কোন জিনিস চাহিবে, যদি তাহা আমরা সাধ্যে থাকে তবে অবশ্যই আমি তোমাকে দান করিব। হযরত ইকরামা (রাঃ) বলিলেন, আমি আপনার নিকট ইহাই চাহিতেছি যে, (আজ পর্যন্ত) আমি আপনার সহিত যত শত্রুতা করিয়াছি বা আপনার বিরুদ্ধে সফর করিয়াছে, অথবা আপনার সহিত যুদ্ধ করিয়াছি এবং আপনার সম্মুখে বা অনুপস্থিতিতে আপনার বিরুদ্ধে যাহা কিছু বলিয়াছি, আমার এই সকল গুনাহ মাফ করিয়া দিবার জন্য আল্লাহর নিকট দোয়া করিবেন। সুতরাং রাসূল (সাঃ) তাহার জন্য এই দোয়া করিলেন, আয় আল্লাহ! সে (অর্থাৎ ইকরামা) আমার

সহিত যত শত্রুতা করিয়াছি বা আপনার বিরুদ্ধে সফর করিয়াছি, অথবা আপনার সহিত যুদ্ধ করিয়াছি এবং আপনার সম্মুখে বা অনুপস্থিতিতে আপনার বিরুদ্ধে যাহা কিছু বলিয়াছি, আমার এই সকল গুনাহ মাফ করিয়া দিবার জন্য আল্লাহর নিকট দোয়া করিবেন।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা 

হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ৩ পড়তে এখানে ক্লিক করুন


পরবর্তী গল্প
হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ৩

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত ইকরামা (রাঃ) ইবনে আবি জাহলের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ১

ক্যাটেগরী