হজ্জের বরকতে | আমার কথা
×

 

 

হজ্জের বরকতে

coSam ১০৪


বর্ণিত আছে যে, একদল ব্যবসায়ী সমুদ্র পথে হজ্জের উদেশ্যে ভ্রমণ করছিল। দুর্ভাগ্য ক্রমে একদিন তাদের নৌযানটি সমুদ্রে ডুবে যায়। ঐ জাহাজের এক ব্যবসায়ীর  পঞ্চাশ হাজার রিয়ালের মালামাল ছিল। কিন্তু জাহাজ ডোবার পর পরই সে ভিন্ন পথে ভ্রমন করতে আরম্ভ করল।

সহ যাত্রীরা তাকে বলল, এখানে কিছু দিন অপেক্ষা করে অনুসন্ধান করলে হয়তো কিছু মালামাল উদ্ধার করতে পারবে। কিন্তু জবাবে সে বলল, আল্লাহর শপথ! সমগ্র পৃথিবীর যাবতীয় ধন-সম্পদের বিনিময়েও আমি হজ্জ এবং আল্লাহর ওলীদের সাক্ষাত ত্যাগ করতে পারব না। সহযাত্রীরা জিজ্ঞেস করল, তুমি ওটাতে এমন কি লাভ করেছ যে, তাঁর বিনিময়ে দুনিয়ার সকল কিছু ত্যাগ করতে পারবে। সে বলল, একবার হজ্জ ভ্রমণে আমার প্রচন্ড পানির পিপাসা পেয়েছিল।

কিন্তু কাফেলার কারো নিকট এক ফোটা পানিও ছিল না। আশেপাশে  খোঁজ করেও সামান্য পানির সন্ধান পাওয়া গেল না। এমনকি পয়সার বিনিময়ে সামান্য পানি সংগ্রহ করা গেল না। এদিকে ক্রমে ক্রমে আমার পানির পিপাসা তিব্র হতে লাগল। অবশেষে আমি নিরুপায় হয়ে একদিকে হাটতে লাগলাম। কিছুদূর অগ্রসর হয়ে আমি এক ফকীরের সাক্ষাত পেলাম।

তাঁর এক হাতে ছিল একটি বর্শা। এবং অপর হাতে ছিল একটি শুন্য পানির মশক। পাশেই ছিল একটি শুষ্ক হাউজ। সে ঐ হাউজের তলদেশে বর্শ দ্বারা আঘাত করামাত্র তথা হতে পানি নির্গত হয়ে ক্রমে ক্রমে হাউজ ভরে গেল। আমি প্রাণ ভরে সেই হাউজের পানি পান করলাম। পরে আমার সঙ্গীদেরকে সেই হাউজের  সন্ধান দিলে তাঁরা সবাই সেখানে গমন করে তৃপ্তির সাথে  পানি পান করল।

পরবর্তী গল্প
হযরত ইবনে ওমর (রাঃ) এর জামানার ঘটনা

পূর্ববর্তী গল্প
সিজদারত অবস্থায় মৃত্যু

ক্যাটেগরী