সাহাবা (রাঃ) দের সেই সকল আমল ও আখলাকের ঘটনা - পর্ব ১ | আমার কথা
×

 

 

সাহাবা (রাঃ) দের সেই সকল আমল ও আখলাকের ঘটনা - পর্ব ১

coSam ৯৩


ইবনে ইসহাক (রহঃ) বর্ণনা করেন যে, আনসারীগণ (রাঃ) রাসূল (সাঃ)-এর হাতে বাইআত হইয়া ফিরিয়া আসিবার পর মদীনায় ইসলাম প্রসার লাভ করিতে লাগিল। কিন্তু আনসারদের মধ্য হইতে তখনও কিছু মুশরিক নিজেদের ধর্মের উপর অবিচল ছিল। তন্মধ্যে একজন আমর ইবনে জামূহ ছিলেন। তাহার পুত্র হযরত মুআয (রাঃ) বাইআতে আকাবায় শরীক ছিলেন এবং সেখানে রাসূল (সাঃ)-এর হাতে বাইআত হইয়াছিলেন।

আমর ইবনে জামূহ বনু সালামা গোত্রের সর্দার ও সম্ভ্রান্ত ব্যক্তিদের ন্যায় তিনিও নিজ ঘরে মানাত নামে কাঠের একটি মূর্তি তৈয়ার করিয়া রাখিয়াছিলেন। উহাকে নিজের মাবুদ মনে করিতেন উহাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখিতেন। হযরত মুআয ইবেন জাবাল (রাঃ), হযরত মুআয ইবনে আমর ইবনে জামূহ (রাঃ) ও বনু সালামা গোত্রের এরূপ আরো কতিপয় যুবক যাহারা বাইআতে আকাবায় শরীক হইয়া মুসলমান হইয়াছিলেন।

তাহারা রাত্রিবেলা যাইয়া আমরের সেই মূর্তি উঠাইয়া আনিতেন এবং বনু সালামার এলাকায় মল ইত্যাদির ন্যায় আবর্জনায় একটি গর্তে উহাকে উপুড় করিয়া ফেলিয়া দিতেন। সকালবেলা আমর চেঁচামেচি করিতেন এবং বলিতেন, তোমাদের নাশ হউক, আজ রাত্রে আমাদের মাবুদের উপর কে চড়াও হইয়াছে? তারপর উহার তালাশে বাহির হইতেন এবং তালাশ করিয়া আনিয়া উহাকে ধুইয়া পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করিয়া সুগন্ধি মাখাইয়া দিতেন।

তারপর বলিতেন, খোদার কসম, আমি যদি জানিতে পারি, কে তোমার সহিত এমন করে তবে তাহাকে অবশ্যই অপদস্থ করিয়া ছাড়িব। সন্ধ্যায় আমর ঘুমাইয়া পড়িলে যুবকগণ আবার মূর্তির উপর চড়াও হইয়া পূর্বের ন্যায় করিলেন। এইভাবে কয়েকবার করিবার পর একদিন আমর উহাকে গর্ত হইতে উঠাইয়া আনিয়া ধুইয়া পরিষ্কার করিলেন এবং সুগন্ধি মাখাইয়া দিলেন। তারপর নিজের তরবারী আনিয়া উহার সহিত ঝুলাইয়া দিয়া মূর্তিকে বলিলেন, খোদার কসম, তুমি তো দেখিতেছ, আমি বুঝিতে পারিতেছি না যে, কে তোমার সহিত এই আচরণ করিতেছে?

অতএব যদি তোমার মধ্যে কোন ক্ষমতা থাকিয়া থাকে তবে এই তরবারী তোমার সহিত রহিল, তুমি নিজেকে রক্ষা করিও। সন্ধ্যায় যখন আমর ঘুমাইয়া পড়িলেন, তখন যুবকগণ উহার উপর চড়াও হইলেন এবং উহার ঘাড় হইতে তরবারীকাখানা লইয়া উহাকে একটি মৃত কুকুরের সহিত রশি দ্বারা বাঁধিয়া বনু সালামার এলাকায় মানুষের মল-মূত্র ইত্যাদির ন্যায় আবর্জনাময় একটি কূপের ভিতর উপুড় করিয়া ফেলিয়া দিলেন। সকালবেলা আমর মূর্তিকে যথাস্থানে না পাইয়াউহার তালাশে বাহির হইলেন এবং কূপের ভিতর মৃত কুকুরের সহিত বাঁধা অবস্থায় উপুড় হইয়া পড়িয়া রহিয়াছে দেখিলেন। মূর্তির দুর্দশা দেখিয়া উহার ব্যাপারে তাহার দিব্যজ্ঞান লাভ হইল (যে সে তো নিজেকেই রক্ষা করিতে অক্ষম) অতঃপর তাহার কওমের মুসলমানরা তাহার সহিত আলাপ করিলেন এবং তিনি মুসলমান হইয়া গেলেন। আল্লাহ তায়ালা তাহার উপর রহমত নাযিল করুন। পরবর্তীকালে তিনি অতি সুন্দর ইসলামী জীবন যাপন করিয়াছেন।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

সাহাবা (রাঃ) দের সেই সকল আমল ও আখলাকের ঘটনা - পর্ব ২ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
সাহাবা (রাঃ) দের সেই সকল আমল ও আখলাকের ঘটনা - পর্ব ২

পূর্ববর্তী গল্প
হযরত শেখ খায়ের নাসসাজ (রঃ ) - শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী