যুবক বেশে হযরত খিজির (আঃ) | আমার কথা
×

 

 

যুবক বেশে হযরত খিজির (আঃ)

coSam ১৪৮


হযরত সুফিয়ান বিন ইব্রাহিম (রহঃ) বলেন, একবার মক্কা শরীফে ইব্রাহীম বিন আদহামের সাক্ষাত পেলাম। তিনি নবী করীম (সাঃ) এর জন্মস্থানে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন। আমি নিকটে  গিয়ে তাকে সালাম করলাম এবং ঐ পূন্য ভূমিতে কান্না কেমন জিজ্ঞেস করলাম। তিনি বললেন- ভাল।

অতঃপর আমি অন্যত্র চলে গেলাম এবং ঘুরে ঘুরে দু-তিনবার সেখানে এসে তাকে একই অবস্থায় কান্নারত দেখলাম। শেষবার তিনি আমাকে বললেন, আবু সুফিয়ান তোমাকে একটি গোপন কথা বলছি। বিগত ত্রিশ বছর যাবৎ আমার হারিসা খাওয়ার ইচ্ছা হচ্ছিল, এ সুদীর্ঘকাল  আমি মনের সেই বাসনাকে দাবিয়ে রেখেছিলাম। কিন্তু গত রাতে স্বপ্নে দেখলাম, এক সুদর্শন যুবক হাতে একটি সবুজ রঙ্গের হারিসা পেয়ালায় নিয়ে আমাকে বলছে খাও।

পেয়ালা থেকে হারিসার খুশবু ছড়াচ্ছিল। আমি নিজেকে সংবরণ করে বললাম, যে বস্তু আল্লাহর নামে ত্যাগ করেছি তা আর কখনো খাব না। সে বলল, আল্লাহর হুকুম হলেও খাবে না? এবার আমি কিছু উত্তর দিতে পারলাম না। আমার দুচোখ ভরে শুধু অশ্রু ঝরতে লাগল। যুবক  আবার বলল, ইব্রাহীম! কেন কাঁদছ! আল্লাহ পাক তোমাকে  মাফ করবেন, তোমার উপর রহম করবেন তুমি নিশ্চিন্তে আহার কর,

অতঃপর যুবক ঐ হারিসার রহস্য প্রকাশ করে বলল, আল্লাহ পাকের নির্দেশক্রমে জান্নাতে দারোগা রিদওয়ান ফেরেশতা আমাকে বলেছেন, হে খিজির! এ খাবার নিয়ে ইব্রাহিম কে খেতে দাও। সে অনেক সবর করেছে, নিজেকে নিষিদ্ধ বস্তু হতে রক্ষা করেছে। আল্লাহ পাক তার উপর রহম করেছেন। 

অতঃপর হজরত খিজির (আঃ) বলেলেন, হে ইব্রাহীম! আমি ফেরেশতাদের নিকট শুনেছি, কোন ব্যক্তি বিনা প্রার্থনায় কিছু দেওয়ার পর সে যদি তা গ্রহণ করতে অস্বীকার করে তবে তার পরিণতি এই হবে যে, পরে সে প্রার্থনা করবে কিন্তু  তাকে দেওয়া হবে না। আমি বললাম, আল্লাহ পাকের এ বিধান আমি কখনো ভঙ্গ করিনি। ইত্যবসরে তথায় অপর এক যুবক আগামন করল। সে হযরত খিজির (আঃ) এর হাতে কিছু দিয়ে বলল এটা লোকমা বানিয়ে ইব্রাহীমের মুখে তুলে দিন। হযরত খিজির (আঃ) আমাকে খাওয়াতে লাগলেন ।

এমন সময় আমার ঘুম ভেঙ্গে গেল। ঘুম থেকে জাগার পর ও আমার মুখে সে আহার্য বস্তুর স্বাদ ও জাফরান রং লেগেছিল। হযরত ইব্রাহীম খাওয়াস (রহঃ) বলেন, একবার সফরের মধ্যে আমি পানির পিপাসায় অজ্ঞান হয়ে গেলাম। কিছুক্ষণ পর এক ব্যক্তি আমার চোখ মুখে পানি ছিটিয়ে দিল। আমি চোখ খুলে দেখলাম, আমার সামনে এক সুদর্শন যুবক ঘোড়ার পিঠে বসে আছে। সে আমাকে পানি পান করায়ে ঘোড়ার পিঠে চড়ায়ে বলল, তুমি আমার সাথে থাকবে। কিছুক্ষণ পর যুবক বলল, তুমি কি দেখছ?

আমি বললাম কি ব্যাপার। এ যে মদীনা শহর? সে বলল, তুমি এখানে নাম। নবী করীম (সাঃ) এর খেদমতে আমার সালাম আরজ করে বলবে, আপনার ভাই খিজির আপনাকে সালাম বলেছে।

পরবর্তী গল্প
নাপিত বেশে

পূর্ববর্তী গল্প
গায়েবী রিযিক

ক্যাটেগরী