মানুষের বাধ্যগত এক বাঘ | আমার কথা
×

 

 

মানুষের বাধ্যগত এক বাঘ

coSam ২১৬


একজন প্রখ্যাত বুজুর্গ বলেন, এক ব্যক্তি ইব্রাহীম বিন আদহাম (রহঃ) এর নিকট এসে আরজ করল, একটি ক্ষুধার্ত বাঘ পথ আটকে রেখেছে। ফলে আমরা যাতায়াত করতে পারছি না।

হযরত ইব্রাহীম (রহঃ) সেই বাঘের নিকট গিয়ে বললেন, হে আবুল হারেস! তোমাকে যদি আমাদের ব্যাপারে কোন হুকুম হয়ে থাকে তবে তুমি উহা পালন কর, অন্যথায় পথ ছেড়ে চলে যাও। এই কথা শুনে সে পথ ছেড়ে চলে গেল।

হযরত ইব্রাহীম খাওয়াস (রহঃ) বলেন, একবার এক গ্রামের ভেতর একটি বিরাট বাঘ আমাকে তাড়া করতে লাগল। আমি দৌড়ে একটি গাছের নীচে আশ্রয় গ্রহণ করলাম। বাঘটি আমার নিকটে আসামাত্র খোড়া হয়ে গেল। তারপর উহা গুণগুণ করে কি যেন বলতে লাগল এবং আমার সামনে বসে আমার কোলের উপর তার দুটি হাত বিছিয়ে দিল। হঠাৎ আমি লক্ষ্য করলাম, তার দেহের এক স্থানে ফুলে উঠেছে এবং তাতে পুঁজ জমা হয়েছে। আমি একটি কাটি নিয়ে ঐ পুঁজ বের করে দিয়ে এতে পট্টি বেধে দিলাম। তারপর সে বাঘটি আমাকে ত্যাগ করে চলে গেল।

হযরত ইব্রাহীম খাওইয়াস (রহঃ) বলেন, উল্লেখিত ঘটনার বেশ কিছুদিন পর হঠাৎ একদিন সেই বাঘটি আমার জন্য দুটি রুটি নিয়ে এল। ঐ সময় তার সাথে দু'টি বাচ্চাও ছিল। হযরত ইব্রাহীম অপর এক ঘটনায় উল্লেখ করে বলেন, একবার আমি মক্কার পথে সফর করছিলাম। একদিন রাতে এক বিরানভূমি অতিক্রমের সময় একটি নেকড়ে বাঘ দেখে আমি ভয় পেয়ে গেলাম। হঠাৎ অদৃশ্য হতে আওয়াজ এল, হে ইব্রাহীম খাওয়াস! ভয়ের কোন কারণ নেই। তোমার নিরাপত্তার জন্য সত্তর হাজার ফেরেশতা তোমার চতুর্পার্শ্বে নিয়োজিত আছে।


পরবর্তী গল্প
রুহানী চিকিৎসা

পূর্ববর্তী গল্প
সিংহ ও নবী করীম (সাঃ) এর গোলাম ছাফীনা

ক্যাটেগরী