মক্কা বিজয়ের ঘটনা - ৭ম পর্ব | আমার কথা
×

 

 

মক্কা বিজয়ের ঘটনা - ৭ম পর্ব

coSam ১৪৯


মক্কা বিজয়ের ঘটনা - ৬ষ্ঠ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

(হুদাইবিয়ার সন্ধির পর খোযাআহ গোত্র রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সহিত এবং বনু বকর গোত্র কোরাইশদের সহিত মৈত্রীসূত্রে আবদ্ধ হইয়াছিল। সন্ধির পর কোরাইশদের মিত্র বনু বকর খোযাআহ গোত্রের উপর আক্রমন চালাইয়া অকথ্য অত্যাচার করিল এবং কোরাইশগণও উহাতে মদদ যোগাইল। ফলে কোরাইশদের পক্ষ হইতে সন্ধি ভঙ্গ হওয়ার দরুন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের জন্য মক্কা অভিযানের পথ উন্মুক্ত হইল। আবু সুফিয়ান (রাঃ) এই ঘটনার প্রতি ইঙ্গিত করিয়া বলিলেন)

শুন, খোদার কসম, (কোরাইশদের) খোযাআহ গোত্রের উপর আক্রমণের ব্যাপারে আমার সহিত কোন পরামর্শ করা হয় নাই, আর আমি জানিতামওনা এবং পরে যখন আমি জানিতে পারিয়াছি তখন উহা পছন্দও করি নাই। কিন্তু বিষয়টি তকদীরে লেখা ছিল বলিয়া ঘটিয়া গিয়াছে। হযরত আব্বাস (রাঃ) বলিলেন, হযরত মুহাম্মাদ সাল্লল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের তোমাদের বিরুদ্ধে এই অভিযানের মধ্যেও আল্লাহ্‌ তায়ালা তোমাদের জন্য কল্যাণ নিহিত রাখিয়াছেন। আর তাহা এই যে, তোমরা সকলেই এখন ইসলাম গ্রহণের সৌভাগ্য লাভ করিলে।

বর্ণনাকারী ওয়াকেদী বলেন, আবু আমর ইবনে হিমাস হইতে আবদুল্লাহ ইবনে আমের (রঃ) আমার নিকট বর্ণনা করিয়াছেন যে, আড়াইশত জনের একটি দল অতিক্রম করিল। ইহারা সকলেই বনু লাইস গোত্রীয় ছিলেন এবং হযরত সা’ব ইবনে জাসসামাহ (রাঃ) এই গোত্রের ঝাণ্ডা বহন করিতেছিলেন। তাহারা অতিক্রমকালে তিনবার তাকবীর ধ্বনি করিলেন। আবু সুফিয়ান (রাঃ) জিজ্ঞাসা করিলেন, ইহারা কাহারা? হযরত আব্বাস (রাঃ) বলিলেন, ইহারা বনু লাইস। তারপর সর্বশেষ আশজা গোত্রীয় তিনশত জনের দল অতিক্রম করিল। ইহাদের একটি ঝাণ্ডা হযরত মা’কিল ইবনে সিনান (রাঃ) ও অপর একটি ঝাণ্ডা হযরত নুআইম ইবনে মাসউদ (রাঃ) বহন করিতেছিলেন।

আবু সুফিয়ান (রাঃ) বলিলেন, সমগ্র আরবের মধ্যে ইহারাই মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর বিরুদ্ধে সর্বাপেক্ষা কঠোর ছিল। হযরত আব্বাস (রাঃ) বলিলেন, আল্লাহ্‌ তায়ালা ইসলামকে তাহাদের অন্তরে প্রবেশ করাইয়া দিয়াছেন। আর ইহা আল্লাহ্‌ তায়ালার একটি অনুগ্রহ। আবু সুফিয়ান (রাঃ) এই কথার পর কিছুক্ষণ নিরব রহিলেন। তারপর জিজ্ঞাসা করিলেন, মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কি এখনো যান নাই? হযরত আব্বাস (রাঃ) বলিলেন, তিনি এখনও যান নাই। তুমি যদি সেই বিশাল বাহিনী দেখ যাহাতে হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আছেন তবে তুমি শুধু লোহাই লোহা, ঘোড়াই ঘোড়া এবং বড় বড় বাহাদুরকে দেখিবে। উহা এমন বাহিনী যে, তাহাদের মুকাবিলা করা কাহারো পক্ষে সম্ভব নহে।

আবু সুফিয়ান (রাঃ) বলিলেন খোদার কসম! হে আবুল ফজল, আমারও মনে হইতাছে যে ইহাদের সহিত মুকাবিলা কে করিতে পারিবে? তারপর যখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের বাহিনী দৃষ্টিগোচর হইল তখন (বর্ম ও অস্ত্রশস্ত্রের দরুন) উহা কালোবর্ণ দেখাইতেছিল। ঘোড়ার পদাঘাতে উত্থিত ধুলিতে চারিদিক আচ্ছন্ন হইয়া গেল। দলের পর দল অতিক্রম করিতে লাগিল। প্রত্যেক দলের অতিক্রম কালে আবু সুফিয়ান (রাঃ) জিজ্ঞাসা করিতেন যে, এখনও কি মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) যান নাই? হযরত আব্বাস (রাঃ) জবাবে বলিতেন, না ঠিক এমন সময় রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাহার কাসওয়া নামক উটে চড়িয়া হযরত আবু বকর (রাঃ) ও হযরত উসাইদ ইবনে হুযাইব (রাঃ) এর মধ্যস্থলে উভয়ের সহিত আলাপরত অবস্থায় অগ্রসর হইতেছিলেন।

মক্কা বিজয়ের ঘটনা -৮ম পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
মক্কা বিজয়ের ঘটনা - ৮ম পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
মক্কা বিজয়ের ঘটনা - ৬ষ্ঠ পর্ব

ক্যাটেগরী