বাইতুল্লাহর পথে এক বালক | আমার কথা
×

 

 

বাইতুল্লাহর পথে এক বালক

coSam ১০৩


বর্ণিত প্রখ্যাত বুজর্গ হযরত ফাতাহ (রহঃ) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, একবার আমি এক জনমানবহীন বনের ভেতর এক বালকের সাক্ষাৎ পেলাম। সে স্বাভাবিক গতিতে পথ অতিক্রম করছে আর তার ঠোট দুটি নড়ছে। আমি নিকটে গিয়ে তাকে ছালাম দিয়ে জিজ্ঞেস করলাম, বেটা কোথায় যাচ্ছ? সে বলল, বাইতুল্লাহ শরীফ যাচ্ছি।

আমি পুনরায় জিজ্ঞেস করলাম, তুমি ঠোট নেড়ে কি পড়ছ? সে বলল, আমি কোরআন তেলাওয়াত করছি। আমি বললাম, আরে বেটা এই বয়সেই ইবাদত বন্দেগী শুরু করেছ? উত্তরে সে বলল, আমার চেয়ে কম বয়সের শিশুরা মৃত্যু বরণ করছে। আমি তাকে বললাম, এত দীর্ঘ পথ তুমি কিভাবে অতিক্রম করবে?

বালক অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে জবাব দিল, আমার কর্তব্য পথে বের হওয়া, মঞ্জিলে মাকদাসে পৌছাবার মালিক আল্লাহ। সফরে আসবাব ও সওয়ারীর কথা জিজ্ঞেস করলে সে বলল, হে চাচা! আপনি যদি কোন মানুষ কে দাওয়াত করেন, তবে কি এটা পছন্দ করবেন যে, মেহমান সঙ্গে খাবার নিয়ে আসবে? আমি বললাম, না, আমি এটা পছন্দ করব না। এবার সে বলল, আল্লাহ পাক বান্দাকে নিজের ঘরে আহ্বান করেছেন, যাদের একীন দুর্বল তারা সাথে খাবার নিয়ে যাচ্ছে।

কিন্তু আল্লাহর ঘরের মেহমান হয়ে সাথে আহার নিয়ে যেতে আমার লজ্জাবোধ হচ্ছে। আপনার কি মনে হয় আল্লাহ পাক নিজের বান্দাকে দাওয়াত করে অভুক্ত রাখবেন। এ কথা বলেই সে অদৃশ্য হয়ে গেল। হযরত শেখ সাহেব বলেন, পরে বালকের সাথে মক্কায় পুনরায় দেখা হলে সে আমাকে বলল- হে চাচা! আপনার এক্বিন এখনো দুর্বল রয়েছে।

পরবর্তী গল্প
মদীনায় জ্বীন কর্তৃক নবুওয়তের সংবাদ প্রচার

পূর্ববর্তী গল্প
দেব মূর্তির পেট থেকে নবুওয়তের আগাম সংবাদ

ক্যাটেগরী