বসরা শহরের পত্তন এবং চার প্রকার আযাব | আমার কথা
×

 

 

বসরা শহরের পত্তন এবং চার প্রকার আযাব

coSam ১২১


আবূ জর (রাঃ) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, হে আনাস! লোকেরা নতুন নতুন শহর আবাদ করবে, তার মধ্যে একটি শহরের নাম হবে বসরা। তুমি যদি কখনো ঐ শহরে যাও তবে তার পাথরময় লবনাক্ত জমিন, বাগানসমূহ, হাট বাজার এবং আমীরদের বাড়ীর ফটক হতে দূরে থাকবে। এবং কোন নিরিবিলি স্থানে গিয়ে আত্নরক্ষার চেষ্টা করবে। কেননা, ঐ শহরকে ধবসিয়ে দেয়া হবে। ঐ শহরে শিলাবৃষ্টি বর্ষণ, ভূমিকম্প নাজিল করা হবে। এমন কি শহরের লোকদের আকৃতিও বিকৃত করে দেয়া হবে।

উক্ত বর্ণনায় দুটি ভবিষ্যদ্বানীর উল্লেখ করা হয়েছে। প্রথমতঃ বসরা নামে নতুন শহর আবাদ হবে এবং দ্বিতীয়তঃ এতে চার প্রকার আজাব নাজিল হবে। দ্বিতীয় ভবিষ্যদ্বানীটি আল্লাহ পাকের ইচ্ছায় পূর্ণ হবে। প্রথম ভবিষ্যদ্বানীটি পূর্ণ হবার বিবরণ এরূপঃ

হযরত ওমর (রাঃ) এর শাসনামলে পারস্যের সাথে যুদ্ধাবস্থা চলছিল, বর্তমানে বসরা শহর যেখানে অবস্থিত, তার উপর দিয়েই পারস্যের ভারত যাওয়ার রাস্তা ছিল। হযরত ওমর (রাঃ) চিন্তা করলেন, পারস্যরা এপথে ভারত থেকে আমাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আমদানী করতে পারে। সুতরাং তিনি ঐ এলাকায় মুসলিম জনপদ পড়ে তুলার পরিকল্পনা গ্রহন করলেন। তার পরিকল্পনা অনুযায়ী উত্তবা বিন গাযওয়ান ১৭ হিজরীতে বসরা শহরের গোড়া পত্তন করেন। (আবূ দাউদ শরীফ)

পরবর্তী গল্প
ইমাম হুসাইনের শাহাদাত সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বানী

পূর্ববর্তী গল্প
পানি সম্পর্কিত মু'যিযা

ক্যাটেগরী