পাট গাছ | আমার কথা
×

 

 

পাট গাছ

coSam ৬১


অনেক দিন আগের কথা। তখন নাসির গাজীর বাল্যকাল ছিল। তখনও অবশ্য তার বুদ্ধি, জ্ঞান, বিচক্ষণতা ছিল অতুলনীয়। কিন্তু তখন তিনি ছিলেন একজন প্রভাবশালী ব্যক্তির কর্মচারী।

একদিন তার মালিক একটি জমি চাষ করে তাতে গম বীজ বপন করতে বললেন। কিছুদিন পর মালিক তার গম ক্ষেত কেমন হয়েছে তা দেখার জন্য গেলেন। ক্ষেতে গিয়ে তো তিনি অবাক দেখলেন - জমি পাট গাছে পরিপূর্ণ হয়ে রয়েছে।

তখন তিনি তার গোলাম নাসির গাজীকে ডাকলেন এবং জিজ্ঞাসা করলেন কি ব্যাপার, আমি না তোমাকে গম বীজ বপন করতে বলেছিলাম? কিন্তু তুমি গমের পরিবর্তে পাট বীজ বপন করেছ কেন? অবশ্যই তোমাকে আমার হুকুম অমান্য করার দরুণ শাস্তি পেতে হবে।

নাসির গাজী বললেন- আমি তো মনে করেছিলাম, পাট বীজ বপন করলে তাতেই গম ফলবে। মনিব বললেন, এতদিন তোমাকে খুব চালাক ও বুদ্ধিমান মনে করতাম। এখন দেখছি- তুমি নির্বোধ ও মুখ ছাড়া কিছুই নও। আরে বেওকুফ ! পাট বীজে গম ফলবে- একথা তুমি কেমনে চিন্তা করলে?

এবার নাসির গাজী বললেন, হুজুর! আমার এহেন আশার কারণ এই যে, আমি দেখতে পাচ্ছি-আপনি দৈনন্দিন বড় বড় গুনাহের কাজ করেও মনে মনে পরকালে বেহেশত পাওয়ার আশা করে থাকেন। ঐ বেহেশত পাওয়া যদি আপনার পক্ষে সম্ভব হয়, তাহলে আমি আপনার গোলাম হয়ে পাট বীজ বপন করলে, গম ফলবে না কেন? আমার আর আপনার আশা কি বরাবর নয়?

নাসির গাজীর মুখে একথা শ্রবণ করে মনিব চমকে উঠলেন। তার ভ্রান্তির নিন্দ্রা মুহুর্তের মধ্যে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে গেল। তিনি বুঝতে পারলেন নাসির গাজী আমার ভুল ভাঙ্গার জন্যই এই কাজ করেছে। তাই তিনি নাসির গাজীর খুব প্রশংসা করলেন এবং আনন্দের আবেগে নাসির গাজীকে পুরস্কৃত করলেন।   

সূত্রঃ মুসলমানের হাসি  

পরবর্তী গল্প
ছাগল - ভেড়ার বুদ্ধি

পূর্ববর্তী গল্প
শিয়ালের স্বপ্ন

ক্যাটেগরী