নিয়ত খারাপ | আমার কথা
×

 

 

নিয়ত খারাপ

coSam ১৯৬


কোন অমুলসিমের সাথে তর্কে লিপ্ত হওয়া উচিৎ নয়। তাতে অমুসলিমদের অন্তর থেকে মুসলমানদের প্রতি ভক্তি শ্রদ্ধাবোধ দূরীভূত হয়।

যেমন বৃটিশ আমলে কান্ধালায় একজন উকিল সাহেব ছিলেন। তিনি খুব রশিক লোক ছিলেন। তিনি একবার ট্রেনে ভ্রমণ করেছিলেন। তার কস্পার্টমেন্ট অনেকগুলো বিধর্মী ছিল।

বিধর্মীদের মধ্যে একজন উকিল সাহেবকে জিজ্ঞেস  করলো, বল দেখি এদেশের ক্ষমতা যদি তোমাদের হাতে আসে তাহলে তোমরা বিধর্মীদের সাথে কেমন আচারণ করবে?

উকিল সাহেব বললেন, কী আর করবো? আমাদের শরীয়তের যা হুকুম আছে তাই করবো! প্রথমে তাদেরকে মুসলমান হওয়ার জন্য আহ্বান করবো। যদি তারা রাজি না হয় রবে জিযিযা (কর) প্রদানের জন্য বলবো। যদি তাতেও রাজি না হয় তখন যুদ্ধের আহ্বান করবো।

বিধর্মীরা চুপ হয়ে গেল। তাদের বলার আর কিছুই রইল না। বস্তুতঃ এ জবাবই সঠিক ছিল।

কিন্তু উকিল সাহেব এবার একটি ভুল করে বসলেন। তিনি কৌতূহল দমন করতে না পেরে জিজ্ঞেস করলেন, আর যদি ক্ষমতা তোমাদের হাতে আসে তাহলে মুসলমানদের সাথে কেমন আচরণ করবে?

বিধর্মীরা বললো, আমাদের হাতে ক্ষমতা আসলে মুসলমানদেরকে এত জুতা পেটা করবো যে ওদের মাথার একটি চুলও থাকবে না। সব ঝরে পড়ে যাবে।

উকিল সাহেব ছিলেন খুব রসিক। তিনি এবার দুই হাত তুলে দোয়া করতে লাগলেন, হে আল্লাহ! তোমার দয়ার সীমা নেই। এ দয়ার জন্য লাখ লাখ শকুর।

বিধর্মিরা বলল, কিসের জন্য শুকুর আদায় করছো? জুতা খাওয়ার শুকুর নাকি?

উকিল সাহেব বললেন, না, তা' নয়। এ জন্যে শুকুর আদায় করছি যে ইনশাল্লাহ কখনও দেশের ক্ষমতা তোমাদের হাতে যাবে না। কারণ তোমাদের নিয়ত খারাপ। যাদের নিয়ত আগে থেকেই খারাপ থাকে তারা কোন দিন রাজত্ব করতে পারে না। এরূপ কোন ইতিহাস নেই যে যাদের আগে থেকে জুলুম করার ইচ্ছা ছিল তারা রাজত্ব পেয়েছে।

পরবর্তী গল্প
পীর সাহেব এর হাত চাটানো

পূর্ববর্তী গল্প
দুই বন্ধুর ঘটনা

ক্যাটেগরী