নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - পর্ব ৩ | আমার কথা
×

 

 

নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - পর্ব ৩

coSam ১৭৪


নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন মূসা বলেন, আমি আল্লাহর আশ্রয় চাচ্ছি মূর্খদের কাজ হতে। ইটকারিতা, সন্দেহপ্রবণতা যে সম্প্রদায়ের বৈশিষ্ট্য তারা যে কোন কথা সহজে মানবে কেন! তা স্বয়ং আল্লাহ এবং তার রাসূলই বলুক না কেন? এবার তারা বলল, যে গাভীটি জবাই করতে হবে, সে গাভীর রং কেমন হবে। সে গাভীর রং কেমন হতে হবে। চাষ করা হয়েছে কিনা ইত্যাদি নানা প্রশ্ন উত্তাপন করতে হবে। সেন গাভীর বৈশিষ্ট্য সংক্রান্ত শর্ত বাড়ছিল। শেষ পর্যন্ত দশগুন বেশি স্বর্ণের ওজনে কারো মতো চামড়া ভর্তি পরিমাণ স্বর্ণের ওজনে গাভীটি খরিদ করতে হয়েছে। অথচ তাঁদেরকে প্রথম যখন বলা হয়েছিল, তখন তারা যে কোন প্রকারের একটি গাভীও যদি জবাই করত তবুও তাদের উদ্দেশ্যে সাধন হত। এ প্রসঙ্গে পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন- অর্থঃ তারা বলল, আপনি আপনার রবের নিকট দোয়া করুন আমাদের জন্য, তিনি যেন বলে দেন সেটি কি কি গুনসপন্ন হতে হবে। মূসা বলেন, আল্লাহ বলছেন, তা এমন একটি গাভী হতে হবে যা না করলে একেবারে বৃদ্ধ আবার না আবার একেবারে বাচ্চা উভয়ের মধ্যবর্তী জোয়ান, অতএব, এখন যা আদেশ করা হয়েছে সে অনুযায়ী কাজ কর। তারা বলল, আমাদের জন্য দোয়া করুন আপনার রবের নিকট, তিনি বলে দেন যে, সেটি কি রংয়ের হবে? তিনি বলেন, আল্লাহ বলেছেন, সেটি একটু হলুদ রং এর গাভী। সেটির রং তীব্র হলুদ, যা দর্শকদেরকে আনন্দ দেয়। তারা বলল, আমাদের জন্য প্রার্থনা করুন আপনার রবের নিকট, তিনি যেন বলে দেন সেটি কি কি গুনসম্পন্ন হতে হবে। কেননা, এ গাভী সস্বন্ধে আমাদের সন্দেহ হচ্ছে, এবং নিশ্চয় আমরা আল্লাহর ইচ্ছায় সৎপথ পাব। মূসা বলেন, আল্লাহ বলছেন- তা এমন গাভী হতে হবে তা না জিমি চাষে আর না শস্য ক্ষেতে পানি সেচে ব্যবহৃত হয়, তাতে কোন দাগ থাকবে না; তারা বলল, এখন আপনি যথার্থ বর্ণনা দিলেন। অতঃপর তারা তা অনিচ্ছায় জবাই করল। বনী ইস্রাইল স্বভাবজাত বক্রোতাদোষ কারণে একটি সহজ বিষয়কেও বার বার নিষ্প্রয়োজনীয় প্রশ্ন করে জটিল করে ফেলে। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, আল্লাহ তাআলা তাদেরকে একটি গাভী যবেহ করার নির্দেশে দিয়েছিলেন। কিন্তু তারা বার বার জিজ্ঞেস করে করে নিজেরাই বিষয়টি জটিল করে ফেলেছে। তাই আল্লাহ তাআলা তাদের জন্য বিষয়টি জটিল করে দিয়েছিলন। যদি তারা বার বার জিজ্ঞেস না করত তা হলে এর জন্য এতগুলো শর্তও আরোপ করা হত না। অতঃপর তারা গাভীর খোযে বের হল। কিন্তু কথাও বর্ণিত গাভীর খোজ পেল না। এ সময় এক যুবক তার পিতার নিকট বসা ছিল। যুবকের পিতা ঘুমিয়ে ছিল। আর তার মাথার নিচে ছিল সিন্ধুকের চাবি। ঠিক এ সময় এক ব্যক্তি মুক্তা বিক্রি করতে আসল। সে এসে যুবককে বলল, হে যুবক! তুমি কি এ মুক্তাটি সত্তর হাজার দিরহামের বিনিময়ে ক্রয় করবে? নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - শেষ পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
নিহত ব্যক্তির কথা বলার ঘটনা - পর্ব ২

ক্যাটেগরী