নাপিত বেশে | আমার কথা
×

 

 

নাপিত বেশে

coSam ১৩০


হযরত জোনায়েদ বাগদাদী (রহঃ) এ ওস্তাদ হযরত শায়েখ আবূজাফর (রহঃ) বলেন, মক্কার মুক্কীম থাকা অবস্থায় একবার আমার মাথার চুল বেশ বড় হয়ে গেল। কিন্তু চুল কাটবার  মত আমার নিকট নগদ কোন পয়সা ছিল না। আমি এক দ্বীনদার নাপিতের নিকট গিয়ে বললাম আল্লাহর ওয়াস্তে আমার চুল কেটে দাও। সে এক দুনিয়াদারের চুল কাটছিল।

আমার প্রস্তাবের সাথে সাথে তারচুল কাটা বন্ধ করে আমার চুল কাটা শুরু করল। অতঃপর চুল কাটা শেষে আমার হাতে কয়েকটি দেরহাম দিয়ে বলল, এটা প্রয়োজন মত খরচ করও। পথে এসে আমি মনে মনে বললাম, আজ সর্বপ্রথম যা আমার হাতে আসবে তা ঐ নাপিতকে হাদিয়া দেব।

নামাযের সময় মসজিদ যাওয়ার পর সেখানে আমার এক তরীকত পন্থী ভাইয়ের সাথে সাক্ষাত হয়। তিনি আমার হাতে একটি টাকার থলি দিয়ে বললেন, বসরা শহর থেকে তোমার এক ভাই এসেছিল। তিনি তোমাকে দেওয়ার জন্য এ টাকার থলিটি আমার নিকট আমানত রেখেছেন।

শেখ আবুজাফর (রহঃ) বলেন, আমি ঐ টাকা নিয়ে নাপিতের নিকট গিয়ে বললাম, ভাই! এতে তিনশ'ত দিনার রয়েছে। আমি তোমাকে এগুলা হাদিয়া দিচ্ছি। তুমি আল্লাহর ওয়াস্তে তা গ্রহণ কর। নাপিত জবাব দিল, হে শায়েখ! তোমার কি লজ্জা হয় না? তুমি তো আমাকে আল্লাহর ওয়াস্তে চুল কেটে দিতে বলেছিল। এখন আবার কেমন করে তাঁর বিনিময় দিচ্ছ?  তুমি তা ফেরত নিয়ে যাও। আমি গ্রহণ করতে পারব না। আল্লাহ তোমাকে মাফ করুন।

পরবর্তী গল্প
মাতালদের কথা

পূর্ববর্তী গল্প
যুবক বেশে হযরত খিজির (আঃ)

ক্যাটেগরী