তায়েফের হৃদয় বিদারক ঘটনা - ১ম পর্ব | আমার কথা
×

 

 

তায়েফের হৃদয় বিদারক ঘটনা - ১ম পর্ব

coSam ৪৯৬


হযরত ওরওয়া (রাঃ) বলেন, নবী কারীম (সাঃ)-এর স্ত্রী হযরত আয়েশা (রাঃ) বর্ণনা করিয়াছেন যে, তিনি একদিন নবী কারীম (সাঃ)কে জিজ্ঞাসা করিলেন যে, ওহুদের দিন অপেক্ষাও কি কঠিন দিন আপনার জীবনে আসিয়াছে? তিনি বলিলেন, তোমার কওমের লোকদের নিকট হইতে আমাকে অনেক কষ্ট সহ্য করিতে হইয়াছে। তন্মধ্যে তাহাদের পক্ষ হইতে আকাবার (অর্থাৎ তায়াফের) দিন সর্বাধিক কষ্ট সহ্য করিতে হইয়াছে। আমি (তায়েফের সর্দার) আবদে ইয়ালীল ইবনে আবদে কুলালের নিকট নিজেকে পেশ করিয়াছে, (যে আমার উপর ঈমান আনয়ন কর আমায় সাহায্য কর এবং আমাকে আশ্রয় দান করিয়া তাবলীগ করিবার সুযোগ করিয়া দাও।) কিন্তু সে আমার কোন কথা গ্রহণ করিল না।

আমি অত্যন্ত মনোবেদনা লইয়া আপন পথে চলিতেছিলাম। কারণ সাআলিবে পৌঁছিয়া আমার হুঁশ হইল। আমি আকাশের দিকে মাথা উঠাইয়া দেখিলাম, এক টুকরো মেঘ আমাকে ছায়া করিয়া আছে। আমি ভালোভাবে লক্ষ্য করিয়া দেখিলাম, উহাতে জিব্রাইল (আঃ) আছেন। তিনি আমাকে ডাকিয়া বলিলেন, আল্লাহ তায়ালা আপনার সহিত আপনার স্বজাতীয় লোকদের কথাবার্তা শুনিয়াছেন এবং তাহাদের জবাবেও শুনিয়াছেন। তিনি আপনার নিকট পাহাড়সমূহের ফেরেশতাকে প্রেরণ করিয়াছেন।

তাহাদের ব্যাপারে আপনার যাহা ইচ্ছা হয় আদেশ করুন। অতএব পাহাড়ের ফেরেশতা আমাকে ডাকিয়া সালাম দিল এবং বলিল, হে মুহাম্মাদ, আপনি জিব্রাইলের নিকট যাহা শুনিয়াছেন তাহারই হুকুম হইয়াছে। অতএব আপনি কি চাহেন? আপনি যদি চাহেন তবে (মক্কায় অবস্থিত আবু কোবাইস ও আহমার) পাহাড়দ্বয়কে পরস্পর তাহাদের উপর মিলাইয়া দিব। নবী কারীম (সাঃ) বলিলেন, বরং আমি আশা পোষণ করি যে, আল্লাহ তায়ালা তাহাদের ঔরসে এমন লোক পয়দা করিবেন যে এক আল্লাহর এবাদত করিবে, তাঁহার সহিত কাহাকেও শরীক করিবে না। (বুখারী)

ইবনে শিহাব (রহঃ) হইতে বর্ণিত আছে যে, আবু তালেবের ইন্তেকালের পর নবী কারীম (সাঃ) আশ্রয় পাইবার আশা লইয়া তায়েফে গমন করিলেন। সেখানে বনু সাকীফের তিন সর্দারের নিকট গেলেন। তাহারা আমরের তিন ছেলে-আবদে ইয়ালীল, হাবীব ও মাসউদ। তিন ভাই ছিল। তাহাদের সম্মুখে নিজেকে পেশ করিলেন এবং নিজ কওমের পক্ষ হইতে যে সকল লাঞ্ছনা-গঞ্জনা সহ্য করিয়াছেন তাহার অভিযোগ করিলেন, কিন্তু অত্যন্ত মন্দভাবে জবাব দিল।

হযরত ওরওয়া ইবনে যুবাইর (রাঃ) বলেন, আবু তালেবের ইন্তেকালের পর রাসূল (সাঃ)-এর উপর নির্যাতনের মাত্রা অত্যাধিক পরিমাণে বাড়িয়া গেল। তখন তিনি আশ্রয় ও সাহায্যের আশায়

তায়েফের বনু সাকীফ গোত্রের নিকট গেলেন। সেখানে সাকীফের তিন সর্দারের সহিত সাক্ষাৎ হইল। তাহারা তিন ভাই ছিল, আবদে ইয়ালীল ইবনে আমর, হাবীব আমর ও মাসউদ ইবনে আমর। তিনি তাহাদের নিকট নিজেকে পেশ করিলেন এবং নিজ কওমের নির্যাতন ও তাহাদের লাঞ্ছনা-গঞ্জনার অভিযোগ করিলেন। তিনজনের একজন বলিল, আল্লাহ তায়ালা যদি আপনাকে কখনও কিছু দিয়া প্রেরণ করিয়া থাকেন তবে আমি যেন কাবা শরীফের পর্দা চুরি করি।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

তায়েফের হৃদয় বিদারক ঘটনা - ২য় পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন


পরবর্তী গল্প
তায়েফের হৃদয় বিদারক ঘটনা - ২য় পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
কোরাইশদের পক্ষ হইতে যেসকল কষ্ট সহ্য করিয়াছেন - শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী