তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২ | আমার কথা
×

 

 

তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ২

coSam ৪৪৪


তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ১ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

হযরত ওরওয়া (রাঃ)-এর শাহাদাতের কয়েক মাস পর বনু সাকীফের লোকেরা পরামর্শের জন্য বসিল এবং তাহার ভাবিয়া দেখিল যে, আশেপাশে সমস্ত আরব গোত্রগুলি রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর হাতে বাইয়াত হইয়া গিয়াছে এবং ইসলাম গ্রহণ করিয়া ফেলিয়াছে। কাজেই আশেপাশের এই সকল আরবদের সহিত যুদ্ধ করিবার শক্তি তাহাদের নাই।

তারপর তাহারা নিজেদের মধ্য হইতে একজনকে রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর খেদমতে প্রেরণ করিবার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করিল। সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাহারা আবদে ইয়ালীল ইবনে আমর সহ ‘আহলাফ’ ভুক্ত (অর্থাৎ অঙ্গীকারাবদ্ধ) গোত্রসমূহ হইতে দুইজন ও বনু মালেক গোত্রের তিনজনকে প্রেরণ করিল। তাহারা মদীনার নিকটবর্তী কানাতে অবতরণ কলিরে সেখানে হযরত মুগীরা ইবনে শো'বা (রাঃ)-এর সহিত তাদের সাক্ষাৎ হইল তিনি পর্যায়ক্রমে নিজের পালায় রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর সাহাবা (রাঃ)-দের উট চরাইতেছিলেন।

বনু সকীফের এই প্রতিনিধি দলকে দেখিয়া রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর নিকট তাহাদের এই আগমনের সুসংবাদ দিবার জন্য তিনি দ্রুত রওয়ানা হইলেন। পথে হযরত আবু বকর সিদ্দীক (রাঃ)-এর সহিত দেখা হইলে তিনি তাহাকে সাকীফের প্রতিনিধি দলের সংবাদ দিলেন এবং বলিলেন যে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) তাহাদের কিছু শর্ত মানিয়া লইলে এবং তাহাদের কওমের নিকট পত্র লিখিয়া দিলে তাহারা বাইয়াত হইয়া ইসলাম গ্রহণ করিবে।

হযরত আবু বকর (রাঃ), হযরত মুগীরা (রাঃ) কে বলিলেন, আমি তোমাকে কসম দিতেছি যা, তুমি আমার আগে যাইবে না, বরং আমিই রাসূলুল্লাহ (সাঃ) কে সংবাদ দিব। হযরত মুগীরা (রাঃ) ইহাতে সম্মত হইলেন এবং হযরত আবু বকর (রাঃ) যাইয়া রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-কে তাহাদের আগমন সংবাদ দিলেন। অপরদিকে হযরত মুগীরা (রাঃ) প্রতিনিধি দলের নিকট ফিরিয়া গেলেন এবং শেষবেলায় নিজের উটগুলি সহ তাহাদিগকে সঙ্গে লইয়া ফিরিলেন।

ইতিমধ্যে তিনি রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-কে সালাম দিবার নিয়ম পদ্ধতি তাহাদিগকে শিখাইয়া দিলেন। কিন্তু তাহারা জাহিলিয়াতের নিয়মেই সসালাম দিল। তাহারা রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর নিকট উপস্থিত হইলে তাহাদের জন্য মসজিদের ভিতর তাঁবু টানানো হইল এবং হযরত খালেদ ইবনে সাঈদ ইবনে আস (রাঃ) তাহাদের ও রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর মধ্যে কথা আদান-প্রদানের দায়ত্ব পালন করিলেন। হযরত খালেদ ইবনে সাঈদ (রাঃ) নবী করীম (সাঃ)-এর নিকট হইতে তাহাদের জন্য খাবার আনিয়া নিজে প্রথম না খাইলে তাহারা উহা হইতে খাইত না। হযরত খালেদ (রাঃ)-ই রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর পক্ষ হইতে তাহাদের জন্য চিঠি লিখিয়া দিয়াছিলেন।

বর্ণনাকারী বলেন, বনু সাকীফ রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর খেদমতে যে সকল শর্তাবলী উল্লেখ করিয়াছিল, তন্মধ্যে একটি এই ছিল যে, তাগিয়া নামক মূর্তি তাহাদের জন্য তিন বৎসর পর্যন্ত বহাল থাকিবে। কিন্তু রাসূলুল্লাহ (সাঃ) উহাতে সম্মত হইলেন না। তাহারা এক বৎসর করিয়া কম করিতে থাকিল। অবশেষে তাহারা কওমের নির্বোধ লোকদের মনোরঞ্জনের উদ্দেশ্যে তাহাদের মদীনায় আগমনের দিন হইতে একমাস কাল সময় চাহিল।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন


পরবর্তী গল্প
তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – শেষ পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ১

ক্যাটেগরী