তাহাজ্জুদের নামায | আমার কথা
×

 

 

তাহাজ্জুদের নামায

coSam ৪৩


তাহাজ্জুদের নামাযঃ
* ঈশার নামাযের পর থেকে সুবহে সাদিকের পূর্ব পর্যন্ত যে নফল নামায পড়া হয় তাকে সালাতুল লাইল' বা তাহাজ্জুদের নামায' বলা হয়। নফল নামাযের মধ্যে এই প্রকার নফল অর্থাৎ, তাহাজ্জুদের ফযীলত সবচেয়ে অধিক ।
* ঈশার নামাযের পর থেকে সুবহে সদিকের পুর্ব পর্যন্ত তাহাজ্জুদের সময়। তবে শেষ রাতে তাহাজ্জুদের নামায পড়া উত্তম।
* তাহাজ্জুদের নামায ২ থেকে ১২ রাকআত। নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সাধারণতঃ ৮ রাকআত পড়তেন বিধায় এটাকেই উত্তম বলা হয়েছে। পারলে ৮ রাকআত নতুবা ৪ রাকআত আর তাও হিম্মত না হলে ২ রাকআত হলেও পড়বে।
* তাহাৰ্জ্জুদের নামাযের কাযা নেই, তবে রাতে পড়তে না পারলে পরের দিন দুপুরের পূর্বে অনুরূপ পরিমাণ নফল পড়ে নেয়া উত্তম।
* তাহাজ্জুদের নামায যে কোন সূরা দিয়ে পাঠ করা যায়, তবে কিরাত লম্বা হওয়া উত্তম।
* দুই রাকআত তাহাজ্জুদের নিয়ত এভাবে করা যায়।
বাংলায়ঃ দুই রাকাত তাহাজ্জুদের নিয়ত করছি।

সূত্রঃ আহকামে যিন্দেগী

পরবর্তী গল্প
তাহিয়্যাতুল উযূ নামায

পূর্ববর্তী গল্প
ঈদুল ফিতরের নামায পড়ার তরীকা

ক্যাটেগরী