জুমুআর নামায | আমার কথা
×

 

 

জুমুআর নামায

coSam ৩৫


জুমুআর নামাযঃ

* শুক্রবার দিন জোহরের পরিবর্তে জুমুআর নামায হয়ে থাকে। প্রথমে চার রাকআত “কাবলাল জুমুআ” সুন্নাতে মুআক্কাদা, তারপর জুমুআর খুতবা ফরয, তারপর দুই রাকআত ফরয, তারপর চার রাকআত বা'দাল জুমু'আ” সুন্নাতে মুয়াক্কাদা, অতঃপর দুই রাকআত সুন্নাতে গায়রে মুআক্কাদা।
* সব মৌসুমেই জুমুআর নামায ওয়াক্ত হওয়ার পর আগে ভাগেই পড়ে নেয়া মােস্তাহাব।
* নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জুমুআর নামাযে প্রথম রাকআতে সূরা জুমুআ এবং দ্বিতীয় রাকআতে সূরা মুনাফিকূন অথবা প্রথম রাকআতে সূরা আ'লা এবং দ্বিতীয় রাকআতে সূরা গাশিয়া পাঠ করতেন। এরূপ করা মুস্তাহাব।
* অসুস্থ্য ও মা'যুর ব্যক্তিদের জন্য মােস্তাহাব হল জুমুআর জামা'আত হয়ে যাওয়ার পর জোহরের নামায পড়া (আযান ইকামত ও জামা'আত ব্যতীত)। মহিলাগণ জুমু'আর জামা'আতের পূর্বেও জোহর পড়ে নিতে পারে।
* চার রাকআত কাবলাল জুমু'আর নিয়ত এভাবে করা যায়।
বাংলায়ঃ চার রাকআত কাবলাল জুমুআর নামাযের নিয়ত করছি।
* জুমুআর দুই রাকআত ফরযের নিয়ত এভাবে করা যায় বাংলায়ঃ
-জুমুআর দুই রাকআত ফরয নামায পড়ছি।
* চার রাকআত বা'দাল জুমুআ নামাযের নিয়ত এভাবে করা যায় বাংলায়ঃ
চার রাকআত বা'দাল জুমুআ নামাযের নিয়ত করছি।

সূত্রঃ আহকামে যিন্দেগী

পরবর্তী গল্প
জুমুআর জামা'আত ওয়াজিব হওয়ার শর্তসমূহ

পূর্ববর্তী গল্প
যাদেরকে ইমাম বানানাে মাকরূহ

ক্যাটেগরী