খ্রীষ্টান কাফেলার সঙ্গে দেশ ত্যাগ | আমার কথা
×

 

 

খ্রীষ্টান কাফেলার সঙ্গে দেশ ত্যাগ

coSam ৩৩


বিষয়টি সালমান (রাঃ) খ্রীষ্টান পাদ্রীদেরকে জানালেন এবং জানতে চাইলেন নিকট ভবিষ্যতে কোন কাফেলা সিরিয়া যাবে কি না?

কয়েকদিনের মধ্যে খ্রীষ্টানগণ তার সঙ্গে যোগ সূত্র স্থাপন করল এবং জানাল যে, অদূর ভবিষ্যতে একটি কাফেলা ইস্পাহান থেকে সিরিয়া গমন করবে। কাফেলা প্রস্থানের নির্ধারিত তারিখে সালমান (রাঃ) নিজেকে লৌহ শৃংখল মুক্ত করে পিতার গৃহ হতে পালাল।

বেশ কিছু অগ্রসর হয়ে কাফেলার সঙ্গে যোগ দিল। কাফেলা সিরিয়ার বড় নগরী দামেস্কে পৌছল। দামেস্কে পৌছে সালমান (রাঃ) জানতে চাইল খ্রীষ্ট ধর্মের প্রধান ব্যক্তি কে?

লোকজন গীর্জার বিশপের দিকে সালমানের দৃষ্টি আকর্ষণ করাল। সালমান (রাঃ) বিশপের কাছে গিয়ে তাঁর কাহিনী বর্ণনা করল এবং জানাল যে, সে খ্রীষ্ট ধর্ম গ্রহণ করতে চায়।

তদুপরি নবাগত বিধায় বিশপের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে চাই। উদ্দেশ্য ছিল তার থেকে খ্রীষ্ট ধর্ম সম্বন্ধে শিক্ষা লাভ করা এবং পাত্রীর সঙ্গে প্রার্থনা করা। বিশপ সালমানকে তার সেবায় গ্রহণ করতে রাজি হলেন।

সুত্রঃ ক্রীতদাস থেকে সাহাবী

পরবর্তী গল্প
বিশপের অপকর্ম

পূর্ববর্তী গল্প
গির্জায় প্রথম দিন

ক্যাটেগরী