খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – শেষ পর্ব | আমার কথা
×

 

 

খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – শেষ পর্ব

coSam ১৯৪


এই কথার পর হযরত আবু বকর (রাঃ) দাঁড়াইয়া বলিলেন, হে আনসারদের জামাত, আল্লাহ তায়ালা তোমাদিগকে উত্তম বিনিময়ে দান করুন এবং তোমাদের এই বক্তাকে দৃঢ়পদ রাখুন। আল্লাহর কসম, তোমরা ইহা ব্যতিত আর কিছু করিলে আমরা কখনও তোমাদের সহিত সন্ধি করিতাম না। অতঃপর হযরত যায়েদ ইবনে

সাবেত (রাঃ) হযরত আবু বকর (রাঃ) এর হাত ধরিয়া বলিলেন, ইনিই তোমাদের খলীফা। তোমরা তাঁহার নিকট বাইআত হও।

হযরত কাসেম ইবনে মুহাম্মাদ (রহঃ) বলেন, নবী কারীম (সাঃ)-এর ইন্তেকালের পর আনসারগণ হযরত সা'দ ইবনে ওবাদাহ (রাঃ) এর নিকট সমবেত হইলেন। তারপর হযরত আবু বকর, হযরত ওমর ও হযরত আবু ওবাইয়দাহ ইবনে জাররাহ (রাঃ) ও সেখানে আসিলেন। বদরী সাহাবী হযরত হুবাব ইবনে মুনযির (রাঃ) দাঁড়াইয়া বলিলেন, আমাদের মধ্য হইতে একজন আমীর হইবেন এবং তোমাদের মধ্য হইতে একজন আমীর হইবেন এবং মধ্য হইতে একজন আমীর হইবেন।

আল্লাহর কসম, হে মুহাজিরীনের জামাত, এই আমীর হওয়ার ব্যাপারে আমাদের মনে তোমাদের প্রতি কোন হিংসা নাই। কিন্তু আমাদের আশঙ্কা হয় যে, এই আমীরী সেই সকল লোকের হাতে না চলিয়া যায় যাহাদের বাপ-ভাইদিগকে আমরা বিভিন্ন যুদ্ধে কতল করিয়াছি। অতঃপর তাহারা আমাদের নিকট হইতে উহার প্রতিশোধ লইতে আরম্ভ করে। হযরত ওমর (রাঃ) বলিলেন, যদি এমন হয়, তবে তুমি যদি পার (তাহার মোকাবিলা করিয়া) মৃত্যুবরণ করিও।

অতঃপর হযরত আবু বকর (রাঃ) কথা বলিতে আরম্ভ করিলেন এবং বলিলেন, আমরা আমীর হইব আর তোমরা উজির (অর্থাৎ সাহায্যকারী) হইবে। এই খেলাফত আমাদের ও তোমাদের মধ্যে। এই খেলাফত আধাআধি সমান ভাগে হইবে, যেমন খেজুরের পাতা দুই সমান ভাগে ভাগ হইয়া যায়। সুতরাং লোকদের মধ্যে সর্বপ্রথম হযরত বশীর ইবনে সা'দ, আবু নোমান (রাঃ) হযরত আবু বকর (রাঃ) এর হাতে বাইআত হইলেন।

সকল সাহাবা (রাঃ) হযরত আবু বকর (রাঃ) এর খলীফা হওয়ার ব্যাপারে একমত হইবার পর তিনি লোকদের মধ্যে কিছু মালপত্র বন্টন করিলেন এবং বনু আদি ইবনে নাজ্জার গোত্রের এক বৃদ্ধা মহিলার অংশ তিনি হযরত যায়েদ ইবনে সাবেত (রাঃ) এর হাতে পাঠাইলেন। বৃদ্ধা জিজ্ঞাসা করিলেন ইহা কি? হযরত যায়েদ (রাঃ) বলিলেন, হযরত আবু বকর (রাঃ) (মাল বণ্টন করিয়াছেন, তন্মধ্য হইতে) মহিলাদেরকেও এই পরিমাণ দিয়াছেন। বৃদ্ধা বলিলেন, তোমরা আমাকে আমার দ্বীনের ব্যাপারে ঘুষ দিতেছি? হযরত যায়েদ (রাঃ) বলিলেন, না। বৃদ্ধা বলিলেন, তোমাদের কি এই আশঙ্কা হয় যে, আমি যে দ্বীনের উপর আছি তাহা পরিত্যাগ করিব? তিনি বলিলেন, না।

বৃদ্ধা বলিলেন, আল্লাহর কসম, আমি ইহা হইতে কখনও কিছুই গ্রহণ করিব না। হযরত যায়েদ (রাঃ) ফিরিয়া আসিয়া হযরত আবু বকর (রাঃ) কে বৃদ্ধার সকল কথা শুনাইলেন। হযরত আবু বকর (রাঃ) বলিলেন, আমরাও তাহাকে যাহা দিয়াছি তাহা হইতে কিছু ফেরত গ্রহণ করিব না। (কানযুল উম্মাল)

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – প্রথম পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন


পরবর্তী গল্প
তায়েফবাসী সাকীফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – পর্ব ১

পূর্ববর্তী গল্প
খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – প্রথম পর্ব

ক্যাটেগরী