খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – প্রথম পর্ব | আমার কথা
×

 

 

খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – প্রথম পর্ব

coSam ১০৩


হুমাইদ ইবনে আব্দুর রহমান হিমাইয়ারী (রহঃ) বলেন, রাসূল (সাঃ)-এর ইন্তেকালের সময় হযরত আবু বকর (রাঃ) মদীনার শেষ প্রান্তে (নিজের ঘর) ছিলেন। ইন্তেকালের সংবাদ পাইয়া তিনি আসিলেন এবং রাসূল (সাঃ)-এর চেহারা মোবারক হইতে চাদর সরাইয়া বলিলেন, আমার পিতা-মাতা আপনার উপর কোরবান হউন।

আপনি জীবিত ও মৃত্যু উভয় অবস্থায় কতই না সুন্দর ও পবিত্র। কাবার রবের কসম, হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এই দুনিয়া হইতে বিদায় হইয়া গিয়াছেন। অতঃপর (বনু সায়েদার ছাপবার নীচে খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের সমবেত হওয়ার সংবাদ পাইয়া) হযরত আবু বকর (রাঃ) ও হযরত ওমর (রাঃ) সেই দিকে দ্রুত চলিলেন।

সেখানে পৌঁছিয়া হযরত আবু বকর (রাঃ) কথা বলিলেন এবং তিনি আনসারদের ব্যাপারে কোরআনে যাহা কিছু নাযিল হইয়াছে বা রাসূল (সাঃ) তাহাদের ব্যাপারে যাহা কিছু বলিয়াছেন তাহা সবই উল্লেখ করিলেন। এমন কি ইহাও বলিলেন যে, আমি ভাল করিয়া জানি যে, রাসূল (সাঃ) বলিয়াছেন, যদি সমস্ত লোকজন এক প্রান্তরের পথ ধরে আর আনসারগণ অন্য প্রান্তরের পথ ধরে তবে আমি আনসারদের পথই ধরিব।

হে সা'দ, তোমারও জানা আছে যে, একবার তুমি বসিয়াছিলে, তোমার উপস্থিতিতে রাসূল (সাঃ) বলিয়াছিলেন, কোরাইশ এই খেলাফতের বিষয়ে দায়িত্বভার গ্রহণ করিবে। নেক লোকেরা কোরাইশের নেক লোকদের অনুযায়ী হইবে এবং বদ লোকেরা কোরাইশের বদলোকদের অনুসারী হইবে। হযরত সা'দ (রাঃ) বলিলেন, আপনি সত্য বলিয়াছেন। আমরা আনসারগণ উজির হইব এবং আপনারা কোরাইশগণ আমীর হইবেন।

হযরত আবু সাঈদ (রাঃ) বলেন, রাসূল (সাঃ) -এর ইন্তেকালের পর আনসারগণ বনু সায়েদার ছাপরায় সমবেত হইলেন এবং আনসারদের মধ্য হইতে লোকেরা দাঁড়াইয়া নিজ নিজ রায় ব্যক্ত করিতে লাগিলেন। তাহাদের মধ্য হইত একজন বলিলেন, হে মুহাজিরীনের জামাত, রাসূল (সাঃ) যখন তোমাদের মধ্য হইত কাহাকেও আমীর বানাইতেন তখন সহিত আমাদের একজনকেও সংযুক্ত করিয়া দিতেন।

অতএব আমার রায় হইল, এই খেলাফতের দায়িত্বভার দুইজনের উপর থাকিবে, একজন আপনাদের মধ্য হইতে এবং অপর জন আমাদের মধ্য হইতে হইবেন। (অর্থাৎ খলীফা দুইজন হইবেন, একজন মুহাজির ও অপরজন আনসারী।) অতঃপর আনসারদের প্রত্যেকেই এই একই রায়ের অনুসরণ করিলেন। অবশেষে হযরত যায়েদ ইবনে সাবে (রাঃ) দাঁড়াইয়া বলিলেন, রাসূল (সাঃ) মুহাজিরীনদের মধ্য হইতে ছিলেন, অতএব ইমাম মুহাজিরীনদের মধ্য হইতে হইবে এবং আমরা তাহার আনসার (অর্থাৎ সাহায্যকারী) হইব, যেমন আমরা রাসূল (সাঃ)-এর আনসার (অর্থাৎ সাহায্যকারী) ছিলাম।

সূত্রঃ হায়াতুস সাহাবা

খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – শেষ পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পরবর্তী গল্প
খেলাফতের ব্যাপারে আনসারদের আত্মত্যাগ – শেষ পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
আনসারদের প্রয়োজনে হযরত আব্বাস (রাঃ) এর প্রচেষ্টা - শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী