ওতাইবা ইবনে আবি লাহাব কর্তৃক নবী কারীম (সাঃ) কে কষ্ট প্রদান | আমার কথা
×

 

 

ওতাইবা ইবনে আবি লাহাব কর্তৃক নবী কারীম (সাঃ) কে কষ্ট প্রদান

coSam ৩৮২


কাতাদাহ (রাঃ) বর্ণনা করেন যে, রাসূল (সাঃ)-এর মেয়ে হযরত উম্মে কুলসুম (রাঃ) কে ওতাইবা ইবনে আবি লাহাব বিবাহ করে এবং অপর মেয়ে হযরত রুকাইয়্যা (রাঃ) কে তাহার ভাই ওতবা ইবনে আবি লাহাবের সহিত বিবাহ দেওয়া হইয়াছিল। তাহাদের উভয়ের রুখসতীর পূর্বেই রাসূল (সাঃ) নবুওয়াত প্রাপ্ত হন। তারপর যখন সূরা তাব্বাত ইয়াদা নাযিল হইল তখন আবু লাহাব তাহার পুত্রদ্বয় ওতবা ও ওতাইবাকে বলিল, আমার সহিত তোমাদের কোন সম্পর্ক থাকিবে না যদি তোমরা মুহাম্মাদ (সাঃ)এর মেয়েদেরকে তালাক প্রদান না কর।

তাহাদের মা- বিনতে হারব ইবনে উমাইয়া যাহাকে কোরআন শরীফে হাম্মালাতাল হাতাব (অর্থাৎ খড়িবাহক) বলা হয়েছে। সেও পুত্রদ্বয়কে বলিল, হে আমার ছেলেরা, তোমরা উহাদিগকে তালাক দিয়া দাও। কারণ তাহারা বেদ্বীন হইয়া গিয়াছে।

অতএব তাহারা উভয়কে তালাক দিল। ওতাইবা হযরত উম্মে কুলসুম (রাঃ) কে তালাক দিবার পর নবী কারীম (সাঃ)-এর নিকট আসিয়া বলিল, আমি তোমার দ্বীনকে অস্বীকার করিলাম এবং তোমার মেয়েকে তালাক দিলাম। তুমিও কখনও আমার নিকট আসিবে না, আর আমিও কখনও তোমার নিকট আসিব না। অতঃপর সে নবী কারীম (সাঃ)-এর উপর আক্রমণ করিয়া বসিল এবং তাঁহার গায়ের জামা ছিড়িয়া ফেলিল। সেই সময় ওতাইবা বাণিজ্য উপলক্ষে সিরিয়া যাইবার প্রস্তুতি লইতেছিল। নবী কারীম (সাঃ) বলিলেন, আমি আল্লাহ তায়ালার নিকট দোয়া করিতেছি, তিনি যেন আপন সিংহ তোমার উপর লেলাইয়া দেন।

ওতাইবা কোরাইশদের এক কাফেলার সহিত রওয়ানা হইল। তাহারা যখন নামক স্থানে রাত্রি যাপনের জন্য অবতরণ করিল, তখন সেই রাত্রে তাহাদের চতুষ্পার্শ্বে একটি সিংহকে ঘোরাফেরা করিতে দেখা গেল। ওতাইবা সিংহের ঘোরাফেরা দেখিয়া বলিতে লাগিল, আমার মায়ের ধ্বংস হউক, খোদার কসম, এই সিংহ আমাকে খাইবে যেমন মুহাম্মাদ (সাঃ) বলিয়াছেন। ইবনে আবি কাবশা (কাফেরগণ রাসূল (সাঃ)কে এই নামে ডাকিত) আমাকে হত্যা করিয়াছে, অথচ তিনি

মক্কায় এবং আমি সিরিয়ায়। সকলের মধ্যে হইতে সিংহ তাহার উপর আক্রমণ করিল এবং আমি এমনভাবে কামড় বসাইল যে, সে মারা গেল।

যুহাইর ইবনে আলা (রহঃ) বলেন, হিসাম ইবনে ওরওয়া তাহার পিতা হইতে আমাদের নিকট বর্ণনা করিয়াছেন যে, সিংহটি সেই রাত্রে কাফেলার চতুর্দিকে ঘুরিয়া ফিরিয়া চলিয়া গেল। কাফেলার লোকজন ওতাইবাকে তাহাদের মাঝখানে লইয়া ঘুমাইল। তাহাদের ঘুমাইবার পর সিংহ সকলকে ডিঙ্গাইয়া ওতাইবাকে ধরিল এবং তাহার মাথা চাবাইয়া ফেলিল।

হযরত ওসমান (রাঃ) প্রথমে হযরত রুকাইয়া (রাঃ)কে বিবাহ করিলেন এবং তাঁহার ইন্তেকালের পর হযরত উম্মে কুলসুম (রাঃ) কে বিবাহ করিলেন। (তাবারানী)


পরবর্তী গল্প
হযরত বুজাইর (রাঃ ) এর আপন ভাই কা'ব এর নামে পত্র – ১ম পর্ব

পূর্ববর্তী গল্প
তায়েফের হৃদয় বিদারক ঘটনা - শেষ পর্ব

ক্যাটেগরী