এক বৃদ্ধার অন্তিম বাসনা | আমার কথা
×

 

 

এক বৃদ্ধার অন্তিম বাসনা

coSam ১৪৭


জনৈক বুজুর্গ বলেন, এক বৃদ্ধা মহিলা আমার প্রতিবেশী ছিল। অধিক ইবাদত ও মহেনত মোশাকাত করতে করতে সে একেবারেই দুর্বল হয়েছিল। একদিন আমি তাকে বললাম, নিজের জানকে এত কষ্ট দিও না একটু আরাম দাও। সে উত্তর দিল, হে শায়েখ।

জানকে আরামে রাখলে রবের দরজা থেকে দূরে সরে যাব। যে ব্যক্তি আল্লাহর পথ ত্যাগ করবে সে দুনিয়ার ধোঁকায় গ্রেফতার হয়ে নিজের ঈমান আমল বরবাদ করবে। জীবনে আমি সামান্যই আমল করেছি। তাও যদি বরবাদ করে ফেলি, তবে আমার কিছুই থাকবে না। নেককার লোকেরা কেয়ামতের দিন কবর হতে উঠে নূরের বোরাকের উপর সওয়ার হয়ে জান্নাতে প্রবেশ করবে।

অসংখ্য হুর গেলমান তাদের খেদমতের জন্য সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে থাকবে। আর গুনাহগার লোকেরা কবর হতে উঠে বিবিধ আজাব ও মুসীবতে লিপ্ত হবে। হাশরের দিন গুনাহগার ও নেককারদেরকে যখন পৃথক করা হবে তখন স্ত্রী স্বামী হতে এবং সন্তান মাতা পিতা থেকে পৃথক হয়ে যাবে।

সেদিন কোন আপনজন কারো উপকার কতে পারবে না। সকলেই ইয়া নাফসী, ইয়া নাফসী বলতে থাকবে। বদকারদের গলায় বেড়ি লাগিয়ে জাহান্নামের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়া হবে। আল্লাহ পাক আমাদেরকে নেককারদের দলভুক্ত হয়ে জান্নাতে প্রবেশ করার তাওফিক দান করুক। আমীন

পরবর্তী গল্প
অবশেষে জুলুমের অবসান

পূর্ববর্তী গল্প
এক গুহাবাসী আবেদ

ক্যাটেগরী