উম্মে মাবাদের ঘরে | আমার কথা
×

 

 

উম্মে মাবাদের ঘরে

coSam ২০১


রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ও তাঁর সঙ্গীরা যে পথ ধরে মদীনায় যাচ্ছিলেন সে পথের ধারেই আবূ মা'বাদ ও উম্মে মা'বাদ দম্পতির কুঁড়ে ঘর। এ পূণ্যত্মা দম্পতিযুগল শ্রান্ত ক্লান্ত ক্ষুধার্ত পথচারীদেরকে আশ্রয় দিতেন, খাদ্য পানীয় যুগিয়ে তাঁদের সেবা করতেন। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ও তাঁর সফরসঙ্গীরা যখন তাঁদের গৃহে উপনীত হন তখন আবূ মা'বাদ গৃহে ছিলেন না।

তিনি দূরে কোথাও মেষপাল নিয়ে গেছেন। তারা উম্মে মা'বাদের কাছে জানতে চাইলেন, এখানে কোন খাদ্য পানীয় কিনতে পাওয়া যাবে কিনা? উম্মে মা'বাদ বিষণ্ণ মুখে বলেন, না, যদি থাকত তবে কিনতে হত না, আমি নিজেই ব্যবস্থা করতাম। গৃহের কোণে একটি কৃশ দূর্বল ছাগল শায়িত ছিল। সেটি দোহন করে দুধ সংগ্রহ করা যায় কিনা এ প্রশ্নের জবাবে উম্মে মা'বদ বলেন, দেখুন,এটি দোহন করে দুধ সংগ্রহ করা যাবে কিভাবে? তবে আপনি দেখতে পারেন, যদি দোহন করে দুধ পান তবে তো ভাল কথা।

উম্মে মা'বাদের এ জবাব পেয়ে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বিসমিল্লাহ বলে সেটি দোহন করতে শুরু করেন। এতে যা দুধ পাওয়া গেল তা যাত্রীদল পরিতৃপ্তি সহকারে পান করে গৃহবাসীর জন্যেও রাখেন। উম্মে মা'বাদের গৃহে দুধ পান শেষে তারা পুনরায় যাত্রা করেন। মদীনা যাত্রী দল চলে যাওয়ার অল্পক্ষণ পরেই আবূ মা'বাদ প্রত্যাবর্তন করেন। ঘরে পাত্রভর্তি দুধ দেখে সবাই জানতে চাইলেন, দুধ কোথায় হতে পাওয়া গেছে? জবাবে উম্মে মা'বাদ আনুপূর্বিক সমগ্র ঘটনা বর্ণনা করেন।

যাত্রী দলের বর্ণনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান। উম্মে মা'বাদ আরবের স্বাভাবিক ওজস্বিনী ভাষায় রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর রুপ গুনের বর্ণনা দেন। স্ত্রীর বর্ণনা শুনে আবু মা'বাদ বলেন, আল্লাহর কসম ইনি তো কুরাইশের সেই ব্যক্তি, যার সম্পর্কে এ যাবত সত্য মিথ্যা কত কিছু শুনে আসছি। আফসোস! উপস্থিত ছিলাম না বলে তাঁর আশ্রয় গ্রহণ করতে পারলাম না। পরে কখনও সুযোগ পেলে অবশ্য চেষ্টা করব। কথিত আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) উম্মে মা'বাদ দম্পতি যে দূর্বল ছাগলটি দোহন করে দুধ পান করেছিলেন, সেটি হযরত ওমর (রাঃ) এর খিলাফতকাল পর্যন্ত জিবীত ছিল।

পরবর্তী গল্প
ইয়াসরিবে প্রবেশ

পূর্ববর্তী গল্প
প্রথম জুমু'আ

ক্যাটেগরী